৫:৪৫ এএম, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার | | ৫ রজব ১৪৪১




অবশ্যই মানতে হবে মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক আদালতের রায় : তথ্যমন্ত্রী

২৬ জানুয়ারী ২০২০, ১২:০৩ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম: মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক আদালতের রায় অবশ্যই মানতে হবে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, এই রায় প্রত্যাখ্যান করার কোনো সুযোগ নেই। 

এটি একটি ঐতিহাসিক রায়।  আন্তর্জাতিক আদালতের বিচারকরা সর্বসম্মতভাবে এই রায় দিয়েছেন। 

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় ‘বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা’ শীর্ষক এক কর্মসূচির আওতায় উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠিকে বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ ও ক্যান্সার রোগীদের অনুদানের চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। 

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আন্তর্জাতিক আদালতের রায়ে বলা হয়েছে-মিয়ানমারকে চার মাস পর আদালতের এই রায়ের কতটুকু বাস্তবায়ন করেছে তার রিপোর্ট করতে।  যখন সেখানকার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির উপর নিপীড়ন-নির্যাতন চালিয়েছে, যখন মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ সংগঠিত হয়েছে, রোহিঙ্গাদের যখন নির্বিচারে হত্যা করা হচ্ছিল, তখন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, ‘আমি যদি দেশের ১৬ কোটি মানুষকে খাওয়াতে পারি, তাহলে মিয়ানমারের ১০/১১ লাখ মানুষকেও খাওয়াতে পারবো। ’ সে কারণে তিনি আমাদের সীমান্ত খুলে দিয়েছেন এবং তাদের বাংলাদেশে জায়গা করে দিয়েছেন। 

উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ইউএনও মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান চৌধুরী, পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জি. শামসুল আলম তালুকদার প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানে উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠির শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষাবৃত্তি হিসেবে প্রাথমিকে ১০১ জন শিক্ষার্থীকে ১২০০ টাকা করে, ৬ষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির ৯৪ জন শিক্ষার্থীকে ১৫০০ টাকা করে, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির ৯ জন শিক্ষার্থীকে ৩২০০ টাকা এবং ডিগ্রী ও অনার্স পর্যায়ে ২ জন শিক্ষার্থীকে ৪ হাজার ৫০০ টাকা করে দেন তথ্যমন্ত্রী। 

এছাড়া প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ২০০ জন শিক্ষার্থীকে শিক্ষা উপকরণ এবং ২টি সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানকে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী এবং ৩০ জনকে বাইসাইকেল দেয়া হয়।   

অনুষ্ঠানে ২১ জন ক্যান্সার, কিডনি, লিভার সিরোসিস, স্ট্রোক, প্যারালাইসিস ও জন্মগত হৃদরোগীকে সরকারি তহবিলের আর্থিক অনুদানের চেক হস্তান্তর করেন মন্ত্রী।