৮:০০ পিএম, ২১ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | | ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

অ্যাপলের পথে হাঁটছে গুগল

২৮ অক্টোবর ২০১৭, ০৮:৪৬ এএম | মুন্না


এসএনএন২৪.কম :গুগল কি তাহলে অ্যাপলকে অনুসরণ করতে যাচ্ছে? সম্প্রতি গুগল পিক্সেলের নতুন দুটি ফোন পিক্সেল ২ ও পিক্সেল ২ এক্সএলের ঘোষণার পরপরই নতুন একটি তথ্য এমনটাই ইঙ্গিত করছে। 

গুগল সম্ভবত আগামী বছর তিনটি স্মার্টফোন বাজারে ছাড়তে যাচ্ছে।  যেমনটা চলতি বছরে অ্যাপল চমক দেখিয়েছে। 

প্রযুক্তিবিষয়ক অনলাইন পোর্টাল ড্রয়েড লাইফের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিক্সেলের নতুন তিনটি ফোন ক্রসহ্যাচ, অ্যালবাকোর ও ব্লুলাইন কোড নামে বাজারে আসবে।  গুগল পিক্সেল বা নেক্সাস স্মার্টফোনের কোড নাম মাছের বিভিন্ন প্রজাতির নাম অনুসারে রেখে থাকে।  যেমনটা পিক্সেল, পিক্সেল এক্সএল, পিক্সেল ২ ও পিক্সেল ২ এক্সএলের কোড নাম যথাক্রমে সেইলফিশ, মার্লিন, ওয়ালাই ও টাইমেন। 

নতুন কোড নামগুলোর মধ্যে ক্রসহ্যাচ নামটি অ্যান্ড্রয়েড ওপেন সোর্স প্রজেক্ট বা এওএসপির ডকুমেন্টে উল্লেখ রয়েছে।  মজার বিষয় ওই ডকুমেন্টে আরও একটি কোড নাম ‘ওয়াহু’–এর উল্লেখ রয়েছে।  তবে এ–সংক্রান্ত কোনো স্মার্টফোন বা যন্ত্র–সম্পর্কিত তথ্য নেই।  ড্রয়েড লাইফের প্রতিবেদনে বলা হয়, এই কোড নামটির স্মার্টফোনের সঙ্গে ২০১৮-এ বাজারে আসা ফোনগুলোর কোনো সম্পর্ক থাকবে না। 

আসন্ন তিনটি পিক্সেল স্মার্টফোনের মধ্যে দুটি হবে প্রিমিয়াম মডেল এবং অন্যটি সম্ভবত সবচেয়ে প্রযুক্তিসম্পন্ন মডেলের ফোন হবে।  তবে তা যা হোক না কেন, বর্তমানে যে সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে, গুগলকে তা যেন না হতে হয়।  বেশ কিছু ঘটনার মধ্যে সম্প্রতি একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা হলো, প্রতিষ্ঠানটি একজন ব্যবহারকারীর কাছে ত্রুটিপূর্ণ পিক্সেল ২ সরবরাহ করেছে। 

আমেরিকান সামাজিক সংবাদ সংস্থা রেডিড বলেছে, একজন গ্রাহক ১২৮ গিগাবাইট তথ্য ধারণ সম্পন্ন পিক্সেল ২ ফোনের চাহিদা জানিয়েছিলেন।  ব্যবহারকারী যখন স্মার্টফোনের বাক্স খোলেন তখন গুণাগুণ নিয়ন্ত্রণের একটি স্লিপ খুঁজে পান।  যেখানে লেখা ছিল, ফোনটি কসমেটিক পরিবর্তনের পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে।  ফোনটি তৈরির সম্পূর্ণ দায়ভার তাইওয়ানভিত্তিক এইচটিসির ওপর থাকলেও এর দায়দায়িত্ব গুগলকেই নিতে হবে।  অন্যদিকে পিক্সেল ২ এক্সএল তৈরি করছে এলজি।  উভয় ফোন বাজারে আসবে ‘মেড বাই গুগল’ ব্র্যান্ডে।