৬:০৮ এএম, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, রোববার | | ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২




অর্থের বিনিময়ে ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরির কারিগর র‌্যাবের জালে ধরা

২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০:৫১ এএম |


এসএনএন২৪.কমঃ অর্থের বিনিময়ে রোহিঙ্গাদের ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করে দেয় এমন একটি চক্রের তিন সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। 

তারা যেকোনো একটি আসল জাতীয় পরিচয়পত্রকে এডিট করে ছবি ও অন্যান্য তথ পরিবর্তন করে এসব ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করে। 

তাদের কাছ থেকে তিনটি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র, পাঁচটি ভুয়া নিকাহনামা, ১৫টি ভুয়া জন্মসনদ, সিটি করপোরেশনের ১৫টি খালি প্রত্যয়নপত্র, ১০টি ভুয়া প্রত্যয়নপত্র, ১৪টি বিভিন্ন ভুয়া সনদ, ১৫টি ভুয়া টিকা কার্ড, ১৫টি ভুয়া নাগরিক সনদের ফটোকপি, ১টি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশেনের সিল, ৮টি প্রশংসাপত্র ও ২৫টি জন্ম নিবন্ধনের আবেদনপত্র উদ্ধার করা হয়েছে।  

মঙ্গলবার তাদের আটকের বিষয়টি র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়।  আটক তিনজন হলো- আব্দুর রহিম (৫৯), আজিজুল করিম রাসেল (৩৫) ও তার স্ত্রী সেলিনা আক্তার (২৮)।  

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. মাহমুদুল হাসান মামুন প্রতিবেদককে জানান, ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করে এমন একটি চক্রের তিন সদস্যকে আটক করা হয়েছে।  তাদের কাছ থেকে তিনটি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র, পাঁচটি ভুয়া নিকাহনামা, ১৫টি ভুয়া জন্মসনদ, সিটি করপোরেশনের ১৫টি খালি প্রত্যয়নপত্র, ১০টি ভুয়া প্রত্যয়নপত্র, ১৪টি বিভিন্ন ভুয়া সনদ, ১৫টি ভুয়া টিকা কার্ড, ১৫টি ভুয়া নাগরিক সনদের ফটোকপি, ১টি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশেনের সিল, ৮টি প্রশংসাপত্র ও ২৫টি জন্ম নিবন্ধনের আবেদনপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। 

র‌্যাব-৭ এর চান্দগাঁও ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট আলী আশরাফ তুষার জানান, আটক তিনজন রোহিঙ্গাদের ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করে দিত।  এদের মধ্যে আজিজুল করিম রাসেল ও তার স্ত্রী সেলিনা আক্তার রোহিঙ্গাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করে দেওয়ার জন্য আব্দুর রহিমের কাছে নিয়ে আসতেন।  আব্দুর রহিম যেকোনো একটি আসল জাতীয় পরিচয়পত্রকে এডিট করে ছবি ও অন্যান্য তথ পরিবর্তন করে এসব ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করতেন।