১০:২১ এএম, ২০ অক্টোবর ২০১৮, শনিবার | | ৯ সফর ১৪৪০


আখাউড়ায় সরকারী খাস জমির অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে সওজ এর মামলা

১৭ এপ্রিল ২০১৮, ০৫:৪৯ পিএম | সাদি


আশরাফুল মামুন, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার আখাউড়া উপজেলার ভাটামাথা তন্তর বাজার এলাকায় সড়ক ও জনপথ (সওজ) এর কোটি টাকার সম্পত্তি দিনে দুপুরে জোর করে দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

এ নিয়ে গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর দখলদারদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলা সড়ক ও জনপথ বিভাগ  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সওজ এর নির্বাহী প্রকৌশলী জনাব আবু এহতেশাম রাসেদ।  তবে তদন্তের স্বার্থে কারো নাম প্রকাশ করা হয়নি। 

স্থানীয় সুত্রে জানা যায় ভাটামাথা তন্তর গ্রামের প্রভাবশালী মোঃ নুরুমিয়া সর্দারের নেতৃত্বে ২০ থেকে ২৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ দখলদার চক্র প্রকাশ্যে সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ কে ম্যানেজ করে এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের ভয়, ভীতি হুমকি প্রদশর্ন করে ট্রাক্টর দিয়ে মাটি ফেলে ভরাট করে সওজ এর ভূমি, জলাশয় ও ব্যাক্তি মালিকানাধীন প্রায় ৫ কোটি টাকার জায়গা দখল করছে। 

২ সপ্তাহ আগে সরকারী জমি হরিলুটের বিষয়টি দেশের প্রথম শ্রেনীর দৈনিকে প্রকাশিত হলেও রহস্যজনক কারনে সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসন ভূমি দখল বন্ধে কোন কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছে না। 

ধরখার ইউপির ভাটামাথা গ্রামের বাসিন্দা আঃ গফুর, মহিউদ্দিন, এনামুল কবির জানান, উক্ত এলাকায় তাদের নিজস্ব ব্যাক্তি মালিকানায় জমি ও রয়েছে এসব জমি জোর করে দখল করছে দখলদার গন।   মামলা হামলা ও হয়রানীর ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে মূখ খোলার সাহস পাচ্ছে না কেহই।  খালের উপর ব্রিজ আছে অথচ সেই খাল কে ভরাট করে রাস্তা তৈরি করা হচ্ছে তাহলে ব্রিজ কিসের জন্য। 

উপজেলার ধরখার ইউপির আওয়ামীলীগ নেতা হাজী মোঃ খন্দকার মাকসুদুর লিটন বলেন, দখলদারগন মানুষ কে বোকা বানিয়ে ব্রিজের নিচে মাটি ভরাট করে রাস্তা করার নামে সরকারী জমি দখল করছে, মানুষ এত বোকা নয় সব বুঝে তাই এসব দখলবাজী বন্ধ হওয়া উচিত। 

এ বিষয়ে ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জনাব এহতেশাম রাসেদ বলেন অবৈধ দখলের বিষয়টি সরেজমিনে পরিদর্শন করে ঐ দখলবাজদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে এবং পুলিশ পাঠিয়ে মাটি ভরাট বন্ধ করা হয়েছে।  আমরা কিছুদিন আগে এই তন্তর বাজারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছি প্রয়োজনে আবার যেকোন সময়  উচ্ছেদ অভিযান চলবে।