৭:৪০ এএম, ১২ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার | | ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




আগের চেয়ে ভালো আছি এখন’

০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৩৮ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম:  ঢালিউডের শীর্ষ তারকা শাকিব খান।  সফল অভিনেতা হিসেবে ঢাকাই চলচ্চিত্রে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক নিয়ে এরইমধ্যে রেকর্ড গড়েছেন তিনি। 

কয়েকদিন আগে জ্বরে আক্রান্ত হন ঢাকাই ছবির সেরা এই নায়ক।  গতকাল জানালেন কিছুটা সুস্থতার খবর। 

আলাপচারিতায় খুব শিগগিরই শুটিংয়ে অংশ নেওয়ার খবরও জানান তিনি।  শাকিব খান বলেন, কয়েকদিন ধরেই জ্বর ছিল।  তারপরও শুটিং বন্ধ রাখিনি।  মাঝে শরীরে জ্বর নিয়েই বেশ কিছুদিন শুটিং করেছিলাম। 

শরীর বেশি খারাপ হওয়াতে চিকিৎসকের পরামর্শে শুটিং থেকে কিছুদিন বিশ্রাম নিচ্ছি।  এখন আগের চেয়ে ভালো আছি।  শুটিং খুব শিগগিরই শুরু করবো।  আগস্টে শারীরিক অসুস্থতা নিয়েই শুটিং করেছিলেন শাকিব খান। 

বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘আগুন’ ছবির শুটিং করছিলেন তিনি।  এ ছবিতে তার নায়িকা হিসেবে আছেন নবাগত জাহারা মিতু।  এদিকে ঈদুল আজহায় শাকিবের ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিটি মুক্তি পায়।  জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত এ ছবিতে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করেন শবনম বুবলী।  ছবিটি মুক্তির সময় শাকিব খানের প্রযোজনা সংস্থা এসকে ফিল্মস থেকে ২০০ সিনেমা হলে প্রজেকশন মেশিন বসানো হয়। 

বলা যায়, নতুন এসব মেশিনে দর্শকরা এবার ঈদের ছবিটি উপভোগ করেন।  শাকিব খান এ বিষয়ে বলেন, এখন আগের চেয়ে কম টাকায় প্রযোজকরা সিনেমা প্রজেকশন  সুবিধা পাচ্ছেন।  খুব বেশি ডিজিটাল হয়নি দেশের সিনেমা হলগুলো।  আমাদের হলগুলোতে ছবি চালানোর জন্য মোটা অংকের টাকায় প্রজেক্টর আগে ভাড়া করতে হতো।  ‘

এসকে বিগ স্ক্রিন’ না এলে এই ঈদেও ডাবল টাকা ভাড়া দিতে হতো।  সেই জিম্মিদশা কাটাতে দেশের ২০০ সিনেমা হলে স্থায়ীভাবে অত্যাধুনিক প্রজেকশন মেশিন বসানো হয়েছে।  ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিটি প্রদর্শনের মাধ্যমেই এসব মেশিন চালু করা হয়েছে। 

শুধু শাকিব খানের ছবি না, সকল প্রযোজক তাদের ছবি মুক্তির দেওয়ার সময় এই প্রজেকশন সুবিধা এখন থেকে পাবেন বলে জানান এই তারকা।  বর্তমান চলচ্চিত্রের দু:সময়ে বড় বাজেটের ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি এসকে ফিল্মস থেকে রোজার ঈদে দর্শকদের উপহার দিয়েছেন শাকিব খান।  নির্মাণচলতি কাজী হায়াতের ‘বীর’ ছবিটিও প্রযোজনা করছেন তিনি।  এরইমধ্যে এ ছবির প্রথমভাগের কাজও শুরু হয়েছে। 

শাকিব খানের মতে, ভালো মানের ছবির সংখ্যা যত বাড়বে দর্শক তত সিনেমা হলে ভিড় করবে।  ভালো মানের ছাড়া দর্শক এখন আর কোনো ছবি গ্রহণ করবে না।  এখন অনেক প্রতিকূলতা পাশ কাটিয়ে চলচ্চিত্রে আমাদের কাজ করতে হচ্ছে।  দেশের বাইরেও বেশকিছু বাংলা চলচ্চিত্র সুনাম কুড়াচ্ছে এখন।  এভাবে ভালো প্রোডাকশন দর্শকদের উপহার দিলে দেশের বাইরে বাংলা সিনেমার কদর আরো বাড়বে। 

আন্তর্জাতিক মানের ছবি ‘এসকে ফিল্মস’ থেকে দর্শকদের উপহার দেওয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে।  আগামী ৪ঠা অক্টোবর শাকিব খান অভিনীত ‘শাহেনশাহ’ ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে।  শাপলা মিডিয়ার প্রযোজনায় এ ছবিটি পরিচালনা করেছেন শামিম আহমেদ রনী।  এ ছবিতে প্রথমবার এক ফ্রেমে কাজ করেছেন শাকিব খান ও নুসরাত ফারিয়া।  ছবিতে নবাগত রোদেলা জান্নাতকেও দর্শকরা দেখতে পাবেন। 

সামনে শাকিব খান অভিনীত আরো একটি ছবি মুক্তি পাবে।  তা হচ্ছে শাহীন সুমনের ‘একটু প্রেম দরকার’।  এ ছবির শেষ অংশের কাজ বর্তমানে চলছে।  বিভিন্ন উৎসবে দর্শকরা শাকিব খানের সিনেমা দেখতে পান।  বছরের অন্য সময় কি তার অভিনীত ছবি দর্শকরা দেখতে পাবেন? এর জবাবে শাকিব খান বলেন, এখন থেকে ঈদ ছাড়া বছরের অন্য সময়ও আমার ছবি দেখা যাবে। 

আর কেউ করুক বা না করুক, আমার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে ফিল্মস নিয়মিত ছবি নির্মাণ করবে।  ঈদ দুটি।  কিন্তু এসকে ফিল্মস থেকে বছরে চার থেকে পাঁচটি সিনেমা মুক্তি পাবে। 


keya