৪:৩২ পিএম, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রোববার | | ৭ রবিউস সানি ১৪৪০




আজ অভিনেত্রী কাজলের জন্মদিন

০৫ আগস্ট ২০১৮, ০১:২৩ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম :  ভারতীয় চলচ্চিত্রের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম কাজল মুখার্জী।  তুমুল জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী সংক্ষেপে শুধু কাজল নামেই সুপরিচিত।  যিনি তার কর্মজীবনে ছয়টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার লাভ করেছেন। 

যার পাঁচটিই শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে।  অন্যটি ১৯৯৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘গুপ্ত’ ছবিতে খলচরিত্রে অভিনয়ের জন্য।  ২০১১ সালে ভারত সরকারের চতুর্থ সর্বোচ্চ সম্মাননা পুরস্কার ‘পদ্মশ্রী’ও পেয়েছেন তিনি। 

আজ এই অভিনেত্রীর জন্মদিন।  শুভ জন্মদিন নায়িকা।  ১৯৭৪ সালের ৫ আগস্ট তিনি ভারতের মুম্বাইয়ের বাঙালি-মারাঠি মুখার্জী-সমর্থ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।  তার বাবা সমু মুখার্জী ছিলেন একজন পরিচালক ও প্রযোজক।  মা তনুজা সমর্থ একজন অভিনেত্রী। 

তার ছোটবোন তানিশা মুখার্জীও একজন অভিনেত্রী।  মাসী নূতনও পাঁচটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জেতা একজন প্রখ্যাত অভিনেত্রী।  মোটকথা, তাদের পরিবারের সকলেই ভারতীয় চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত। 


কাজলের আরও একটি পরিচয় হল, তিনি বলিউডের অ্যাকশন হিরো অজয় দেবগনের স্ত্রী।  ১৯৯৯ সালে এ জুটির বিয়ে হয়।  সুপারহিট নায়িকা কাজলের বলিউডে অভিষেক হয় ১৯৯২ সালে ‘বেখুদি’ ছবির মাধ্যমে।  রোমান্টিক সে ছবিতে কাজলের মাও অভিনয় করেছিলেন।  তবে তার প্রথম বাণিজ্যিক সফল চলচ্চিত্র হল থ্রিলারধর্মী ‘বাজীগর’।  বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের বিপরীতে অভিনয় করা সে ছবিটি ১৯৯৩ সালে মুক্তি পেয়েছিল। 

যদিও ২৫ বছরেরও বেশি সময়ের ক্যারিয়ারে কাজল অভিনীত ছবির সংখ্যা খুব একটা বেশি নয়।  ডজন তিনেক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি।  সেগুলোর মধ্যে, বাজিগর, দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে, গুপ্ত, ইশক, কুছ কুছ হোতা হ্যায়, পিয়ার কিয়া তো ডরনা কিয়া, কাভি খুশি কাভি গাম, ফানা, মাই নেম ইজ খান ও দিলওয়ালে অন্যতম।  কাজলের সঙ্গে শাহরুখ খানের জুটি বলিউডের ফিল্ম ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। 


চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি কাজল সামাজিক কর্মকান্ডের সঙ্গেও জড়িত।  তিনি বিধবা নারী এবং শিশুদের নিয়ে কাজের জন্য সুপরিচিত।  এই কাজের জন্য তিনি ২০০৮ সালে কর্মবীর পুরস্কার লাভ করেন। 

এছাড়া তিনি জি টিভির রিয়েলিটি শো ‘রক-এন-রোল’ অনুষ্ঠানের বিচারক এবং নিজেদের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান দেবগন এন্টারটেইনমেন্ট অ্যান্ড সফটওয়্যার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। 



keya