৮:৫৭ পিএম, ১৬ মে ২০২২, সোমবার | | ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩




আনসার ও নির্বাচন কর্মকর্তা মিলে ধর্ষণ:অভিযোগ গৃহকর্মীর

১৪ মে ২০২২, ১০:৪১ এএম |


নিজস্ব প্রতিবেদক: 

আনসার ও নির্বাচন কর্মকর্তা মিলে ধর্ষণ করেছে গৃহকর্মীকে এমন অভিযোগ উঠেছে  চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে ।  ধর্ষণের অভিযোগে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচনী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।  বৃহস্পতিবার সকালে ফটিকছড়ি থানায় মামলাটি করেন ৪৭ বছর বয়সী ওই গৃহকর্মী।  মামলায় আরও দুজনকে ধর্ষণের সহযোগী হিসেবে আসামি করা হয়েছে।  আসামিরা হলেন- ফটিকছড়ি উপজেলা আনসার ভিডিপি কমান্ডার সাইদুল ইসলাম, খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা (ফটিকছড়ির সাবেক) হুমায়ুন কবির।  অন্য দুজন হলেন ফটিকছড়ির সুন্দরপুর ইউনিয়ন আনসার কমান্ডার ইয়াকুব আলী ও আরেক গৃহকর্মী শিখা শীল।  ফটিকছড়ি থানার ওসি কাজী মাসুদ ইবনে আনোয়ার জানান, “আনসার কর্মকর্তা ও নির্বাচনী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে।  মামলাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।  এজাহার থেকে জানা গেছে, উপজেলা সদরে ব্যক্তি মালিকানাধীন একটি ভবনে ভাড়া থাকতেন উপজেলা আনসার কমান্ডার সাইদুল ইসলাম, নির্বাচনী কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির।  ওই বাসায় রান্নার কাজ করতেন অভিযোগকারী নারী।  গত ২৭ মার্চ ওই বাসায় সাইদুল ও হুমায়ুন ওই নারীকে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে মামলায়।  ঘটনার সময় হুমায়ুন কবীর ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।  গত ২৮ এপ্রিল তিনি ফটিকছড়ি থেকে খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলায় বদলি হন।  ধর্ষণের মামলার বিষয়ে জানতে  হুমায়ুন কবীরের সাথে বারবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করতে চাইলে ফোন ব্যাস্ত দেখিয়েছে।  অন্য আসামি সাইদুল বলেন, “গত বছরের নভেম্বরে ফটিকছড়িতে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন নিয়ে একটি পক্ষ ক্ষুব্ধ হয়ে আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এ মামলা করেছে। 


keya