৭:৫৩ এএম, ১৭ জুলাই ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৪ জ্বিলকদ ১৪৩৯


আবারো ছাত্রলীগের হাতে মারধরের শিকার রাবি শিক্ষার্থী

০৪ জুলাই ২০১৮, ০৪:৫৭ পিএম | সাদি


মেশকাত মিশু, রাবি প্রতিনিধি : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগ তুলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। 

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি গোলাম কিবরিয়া।  বুধবার বেলা ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট ভবনের সামনে ছাত্রলীগ কর্তৃক মারধরের ঘটনা ঘটে। 

সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর নাম জসিম উদ্দিন বিজয়।  তিনি বিশ্ববিদ্যালয় আরবি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। 

এ সময় জসীম সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, ‘আজ বিভাগের একটি পরীক্ষা ছিল।  আমি মেইনগেট দিয়ে আসছিলাম।  আসার পথে ছাত্রলীগের নেতারা আমাকে আটকে মারধর করে।  এ সময় ছাত্রলীগ সভাপতি গোলাম কিবরিয়া  আমার মুখে আঘাত করে। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, ওই শিক্ষার্থীর সাথে শিবিরের সম্পৃক্ততা রয়েছে।  সে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করায় তাকে প্রক্টরের হাতে তুলে দিয়েছি।  মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে আহত শিক্ষার্থীকে প্রক্টর দপ্তরে এনে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি।  সে এখন আমার দপ্তরে বিশ্রামের জন্য আছে। 

এ দিকে সকালে সকাল থেকে গুড়িগুড়ি বৃষ্টির মধ্যে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সিনেট ভবনের সামনে অবস্থান নিতে দেখা যায়।  সেখানে গান করতে দেখা গেছে তাদের।  কিন্তু অভিযোগ উঠে তারা সেখানে ছেলেটিকে মারধর করছিল। 

এর আগে সোমবার বিকেল ৪টার দিকে সরকারি চাকুরিতে কোটা সংস্কার পন্থীদের পূর্বঘোষিত পতাকা মিছিলে হামলা চালায় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। 

এ সময় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের বেধড়ক মারধর করা হয়।  এতে আহত হন ১২ জন।  তাদের মধ্যে তারেক নামের একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।  তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। 

এ নিয়ে ছাত্রলীগের হামলায় অন্তত ২০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। 



keya