৬:০৪ এএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, শনিবার | | ৬ রবিউস সানি ১৪৪০




আরও একবার অসহায় আত্মসমর্পণ

০৮ মার্চ ২০১৮, ১১:৫৮ পিএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : সাব্বির-লিটনের খানিক ব্যাটিংটুকু বাদ দিলে গোটা ম্যাচে এক মুহূর্তের জন্য চালকের আসনে বসতে পারেনি বাংলাদেশ।  আর সাব্বির লিটনের ব্যাটিংটাকে তো বলা চলে অকূলে কূলের খোঁজে হাতড়ানো।  তাতে দল চ্যালেঞ্জিং স্কোর না পেলেও অন্তত লজ্জাটুকু এড়াতে পেরেছে। 

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে হারের পর টাইগাররা আছে পরাজয়ের বৃত্তে-বন্দি ।  যেন তা থেকে বের হওয়ার পথটি হারিয়ে ফেলেছেন তামিম-মুহমুদউল্লাহরা।  বৃহস্পতিবার নিদাহাস ট্রফিতে ভারতের কাছে ৬ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ।  ১৮.৪ ওভারে মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে তরী ভেড়ায় রোহিতের দল। 

এদিনের ম্যাচে একের পর এক ক্যাচ তুলল বাংলাদেশ।  আবার ক্যাচ ফেলার দারুণ এক প্রদর্শনীও দেখাল ভারত।  টি-টোয়েন্টিতে ১৫ ওভারের মধ্যে ৫টি ক্যাচ ফেলার পর রান উৎসবের আশা করাই যায়।  কিন্তু বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সুযোগ কাজে লাগানোর কোনো চেষ্টাই দেখা গেল না।  হাস্যকর এক ব্যাটিং প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ ৮ উইকেট হারিয়ে এদিন মাত্র ১৩৯ রান তুলতে পেরেছিল। 

আর তাইতো নিদাহাস ট্রফিতে শুরুটা ভালো হলো না টাইগারদের।  ঘরের মাঠে ব্যর্থতার পর শ্রীলঙ্কাতেও হারের বৃত্তে কোর্টনি ওয়ালশের অধীনে থাকা বাংলাদেশ।   টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের এই টুর্নামেন্টে ভারতের কাছে ৬ উইকেটে হেরেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। 

বাংলাদেশের দেয়া ১৪০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে আগ্রাসী ভঙ্গিতে খেলেছে ভারত।  যদিও চতুর্থ ওভারে মোস্তাফিজের বলে হোঁচট খেয়েছে শুরুতে।   বোল্ড করেছেন ১৭ রানে ক্রিজে থাকা অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে। 

কিছুক্ষণ পর রিশাব পান্তকে বোল্ড করেন রুবেল হোসেন।  ৭ রানে ফেরেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান।  ৪০ রানে দুই উইকেট হারানোর পর দলকে টেনে তুলেন ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও সুরেশ রায়না।  দুই অভিজ্ঞ তারকার ব্যাটেই শত রান পার করে ভারত। 

বড় হতে থাকা এই জুটিকে ১০৮ রানে ভাঙেন রুবেল হোসেন।  মেহেদী হাসান মিরাজকে ক্যাচ দিয়ে ২৮ রানে ফেরেন রায়না।   কিন্তু ধাওয়ানকে আটকাতে পারছিল না বোলাররা।  অবশেষে হাফসেঞ্চুরিয়ান ধাওয়ানকে ৫৫ রানে সাজঘরে ফেরান তাসকিন।  তার ৪৩ বলের ইনিংসে ছিল ৫টি চার ও ২টি ছয়। 

শেষ পর্যন্ত মনিশ পান্ডে ও দিনেশ কার্তিকের ব্যাটে ১৮.৪ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে জয় নিশ্চিত করে ভারত।  পান্ডে ২৬ রানে অপরাজিত ছিলেন আর ২ রানে ব্যাট করছিলেন কার্তিক। 

বাংলাদেশের পক্ষে ২৪ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন রুবেল হোসেন।  একটি করে উইকেট নেন মোস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদ।  ম্যাচসেরা হয়েছেন ৩২ রানে ২টি উইকেট নেয়া ভারতের বিজয় শঙ্কর। 



keya