৬:৪০ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৯ মুহররম ১৪৪০


ইমোশনাল করতে চাইনি আপনাদের

০৯ জুলাই ২০১৮, ০৬:০০ পিএম | মাসুম


এসএনএন২৪.কম : আসসালামু আলাইকুম, আগে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি সবার টেক্সট'র রিপ্লে দিতে না পারাতে! কালকে যে অসহায় বাচ্চা আর মহিলার ভিডিওটি যাদের ইমোশনাল করেছে, তাদের কাছেও ক্ষমা চাচ্ছি।  আসলে আমি আপনাদের ইমোশনাল করতে চাইনি।  আমি শুধু সমাজের প্রতিদিনের একটি করুণ দৃষ্টি তুলে ধরতে চেয়েছি! প্রতিদিন বা মাঝে-মাঝেই এইসব ফেস করতে হয়।  তাই চেয়েছি আপনারা যাতে নিজ নিজ জায়গা থেকে তাদের জন্য একটু এগিয়ে আসেন।  যাতে মানুষে মানুষে কোন ভেদাভেদ না থাকে। 

কারণ আমি বিশ্বাস করি সবার উপরে মানুষ সত্য! ভিডিওটা আপ দিয়ে আমি ভাবিনি আপনারা এতো সাঁড়া দিবেন।  তার জন্য আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ! আল্লাহ আপনাদের এই মানবিক অন্তরকে আরও উজ্জ্বল করুক। 

এবার আসি কাজের কথায়।  যারা খুব উদ্বিগ্ন ছিলেন।  যে এই অসহায় মহিলা কেমন আছেন? বা সেই বাচ্চাগুলোর কী খবর? তাদের সবাইকে আনন্দের সাথে বলছি- তারা এখন সুস্থ আছেন।  আজ সেই অসহায় মহিলাকে আমি আর ৫টা ভাইয়া মিলে হসপিটালে ভর্তি করিয়েছি।  তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর ডাক্তার বলেছেন- তিনি আল্লাহর রহমতে ঠিক আছেন।  কারণ আগের রাতে তাকে মেডিসিন দেওয়া হয়েছিল।  চিকিৎসা শেষ করে মহিলার ছোট দুটো বাচ্চার জন্য নতুন জামা-প্যান্ট এবং মহিলার জন্য নতুন শাড়ি কিনে দেওয়া হয়েছে।  তাদের সাময়িক খাবার দেওয়া হয়েছে। 

যাদের কথা বলতে চাই- ইয়ামিন ভাইয়া এবং সাথে আরও ৩ জন ভাইয়া ছিল যারা যথেষ্ট সাহায্য করেছেন।  ডাক্তারও ফি নেয়নি! আরো একটি সুন্দর নিউজ দিতে চাই তা হল- দৈনিক যুগান্তর থেকে আমাদের সাথে দুইটা ভাইয়া ছিল।  তারা তাদের সাথে কথা বলেছে এবং তারা কথা দিয়েছে, তারা তাদের উপর মহলের সাথে কথা বলে এই অসহায় পরিবারটিকে একটু উপযুক্তভাবে বেঁচে থাকার রাস্তা তৈরি করে দিবেন। 

আরও কিছু কথা বলতে চাই- আপনারা এই অসহায় পরিবারের কথা বলে, কেউ যদি কোন মানবিক আবেদন করে, তাহলে সেই আবেদনে সাঁড়া দিবেন না।  মনে করেন এই পরিবারটির একটা ব্যবস্থা হয়ে গিয়েছে।  কেউ প্রতারিত হবেন না। 

আবারো ধন্যবাদ দিচ্ছি যারা আজ আমার পাশে ছিল, তাদের হেল্প করার জন্য সেই ৫ জন ভাইকে।  শেষ করতে চাই, আমি দেখেছি কিছু মিডিয়া এই ইমোশনাল ভিডিওটা নিয়ে তারা নিজেদের নামে বা নিজেদের করা ভিডিও বলে ব্যবসায়ী ফায়দা তুলছে।  সাথে কিছু ফোটোগ্রাফার আমার করা ভিডিও থেকে স্কিনসট নিয়ে ফোটোশফ দিয়ে এডিট করে নিজেদের লেভেল ছোট করছে।  তাদের কাছে আমার অনুরোধ- প্লিজ মানুষের অসহায়ত্ব নিয়ে ব্যবসা করবেন না! আপনি যা সত্য তাই তুলে ধরেন! মানবতার জয় হোক। 

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)