১০:৪১ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৭ সফর ১৪৪১




ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের ব্যাপারে সাবধান, ট্রাম্পকে হুঁশিয়ারি স্যান্ডার্সের

১৬ জুন ২০১৯, ০৪:০২ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম : মার্কিন ডেমোক্র্যাটিক পার্টির সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বার্নি স্যান্ডার্স ওমান সাগরে দুটি তেল ট্যাংকারে রহস্যজনক হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করার ব্যাপারে ওয়াশিংটনকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করার অজুহাত হিসেবে যেন এই অভিযোগকে ব্যবহার করা না হয়। 

তিনি এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, ওমান সাগরের ঘটনাকে ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের অজুহাত হিসেবে অবশ্যই ব্যবহার করা যাবে না। 

তিনি আরও লিখেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে সামরিক ব্যবস্থা নেয়া যে শুধু বেআইনি হবে তাই নয় সেইসঙ্গে এর ফলে “আমেরিকা, ইরান, মধ্যপ্রাচ্য ও গোটা বিশ্বে চরম বিপর্যয় নেমে আসবে। 

গত বৃহস্পতিবার সকালে ওমান সাগরে দুটি বিশাল তেলবাহী ট্যাংকে সন্দেহজনক হামলা হয়।  এতে বিস্ফোরণের পর আগুন ধরে যায়।  একটি জাহাজ জাপানি মালিকানাধীন, অন্যটি মারশাল আইল্যাণ্ডের।  হামলার পরপরই নিকটবর্তী দেশগুলোতে বিপদ সংকেত পাঠানো হয় এবং দ্রত ইরানি উদ্ধারকারী জাহাজ হামলার শিকার জাহাজ দুটি থেকে সব ক্রুকে উদ্ধার করে। 

ঘটনার পরপরই মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও ইরানকে দায়ী করেন এবং সৌদি আরব ও ব্রিটেন তাতে সমর্থন দেয়।  তবে জার্মানিসহ আমেরিকার বহু মিত্র দেশ এবং হামলার শিকার ট্যাংকারগুলোর মালিকরা বলেছেন, এ হামলার জন্য সরাসরি ইরানকে দায়ী করার মতো কোনো তথ্যপ্রমাণ কারো হাতে নেই। 

এদিকে ইরান ওই ঘটনায় নিজের জড়িত থাকার অভিযোগ কঠোর ভাষায় প্রত্যাখ্যান করেছে। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার ‘অর্থনৈতিক সন্ত্রাসবাদ’ থেকে বিশ্ব জনমতকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার লক্ষ্যে ‘নাশকতামূলক কূটনীতি’র আশ্রয় নিয়েছে ওয়াশিংটন।