১১:৩৪ এএম, ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার | | ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

ইসির সংলাপে আমন্ত্রণ পাচ্ছেন ৬০ সাংবাদিক

০৮ আগস্ট ২০১৭, ০৭:০৮ এএম | পলি


এসএনএন২৪.কম : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে চলমান সংলাপের দ্বিতীয় ধাপে গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে বৈঠকে বসছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।  আগামী ১৬ ও ১৭ আগস্ট সাংবাদিকদের সঙ্গে ইসির সংলাপের কথা রয়েছে।  এই বৈঠকে অন্তত ৬০ জন সম্পাদক ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিককে আমন্ত্রণ জানানো হবে। 

নির্বাচন কমিশনের ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সোমবার জানান, প্রস্তুতি চলছে।  দুই একদিনের মধ্যে গণমাধ্যম কর্মীদের আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হবে।  ৬০ জনের মতো প্রতিনিধিকে দাওয়াত দেয়া হতে পারে বলে জানান তিনি। 

ইসি সচিব বলেন, ‘আমরা সবার কাছ থেকে মতামত নেব।  কমিশন ঠিক করবে কোন মতামতটা গ্রহণ করা হবে না।  এমনকি যে কেউ ইমেইলে ইসিকে মতামত দিতে চায়, দিতে পারেন। ’ তবে ইসির পক্ষ থেকে কোনো বিজ্ঞপ্তি দিয়ে মতামত চাওয়া হবে না বলে জানান তিনি। 

ইসি কর্মকর্তারা জানান, অনলাইন, প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও রেডিও’র গণমাধ্যম প্রতিনিধির একটি প্রাথমিক তালিকা করা হয়েছে।  এ তালিকা পরিমার্জন-সংযোজন করা হতে পারে। 

প্রাথমিক তালিকায় যাদের নাম
নির্বাচন কমিশনের করা প্রাথমিক তালিকায় সাংবাদিকদের মধ্যে নাম রয়েছে- আবুল কালাম আজাদ, মাহফুজুর রহমান, তৌফিক ইমরোজ খালিদী, আলমগীর হোসেন, খায়রুল আনোয়ার, জ ই মামুন, মুন্নী সাহা, শাইখ সিরাজ, সৈয়দ আশিক রহমান, মনজুরুল আহসান বুলবুল, মোস্তফা ফিরোজ, আহমেদ জুবায়ের, খালেদ  মুহীউদ্দীন, রেজোয়ানুল হক রাজা, মেজবাহ উদ্দীন, মোজাম্মেল হক, তালাত মামুন, সুকান্ত গুপ্ত অলোক, ফাহিম আহমেদ, আমিনুর রশীদ, হাসনাইন খুরশিদ, মনজুরুল ইসলাম, অশোক চৌধুরী, নূরুল কবীর, এম শামসুর রহমান, মো. জোবায়ের আলম, মোয়াজ্জেম হোসেন, রিয়াজউদ্দিন আহমেদ, এ এম মোফাজ্জেল, এনামুল হক চৌধুরী, মাহফুজ আনাম, জাফর সোবহান, মতিউর রহমান, গোলাম সারওয়ার, সাইফুল আলম, আশিষ সৈকত, স্বদেশ রায়, ইমদাদুল হক মিলন, মোহাম্মদ গোলাম সারওয়ার, মতিউর রহমান চৌধুরী, খন্দকার মুনীরুজ্জামান, শ্যামল দত্ত, নাঈমুল ইসলাম খান, নঈম নিজাম, আলমগীর মহিউদ্দীন, এএমএম বাহাউদ্দিন, মিজানুর রহমান মিজান, রিজওয়ান সিদ্দীকি, কাজী রুকুনউদ্দীন আহমেদ, রোমো রউফ চৌধুরী, আনিস আলমগীর, মুহাম্মদ শফিকুর রহমান, ফরিদা ইয়াসমিন, আবেদ খান, মাহফুজুল্লাহ, পীর হাবিবুর রহমান, কাজী সিরাজ, আমানুল্লাহ কবীর, আমির খসরু, শাহজাহান সরদার, বিভু রঞ্জন সরকার, সৈয়দ বদরুল আহসান, গোলাম মর্তুজা, মাহবুব কামাল। 

এছাড়া বিটিভি, সরকারি-বেসরকারি রেডিও’র প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ তালিকায় রাখা হতে পারে।  বিটিভি, বেতার, বিবিসি, বেসরকারি তিনটি রেডিও’র প্রতিনিধিসহ ইসির আগের বারের সংলাপে অন্তত ৭৮ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। 

রোডম্যাপ অনুযায়ী গত ৩১ জুলাই শুরু হয়েছে নির্বাচন কমিশনের সংলাপ।  সেদিন সুশীল সমাজের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন নির্বাচন কমিশনাররা।  সংলাপের এই ধারাবাহিকতায় তারা বসবেন রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গেও। 

এই সংলাপে সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণ, আইন সংস্কার, ভোটার তালিকা হালনাগাদ, নতুন নিবন্ধন, ভোটকেন্দ্র, ইসির সক্ষমতা বাড়ানো, সবার জন্যে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি ও ইভিএম নিয়ে আলোচনা হবে। 

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন হয়েছিল।  সে হিসেবে ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারির আগের ৯০ দিনের মধ্যে একাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।  ২০১৮ সালের ৩০ অক্টোবরের পর শুরু হবে একাদশ সংসদ নির্বাচনের সময় গণনা।