১:২৮ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭, সোমবার | | ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

ইহকালের শান্তি ও পরকালের মুক্তি অর্জনে বিশ্বনবী (সঃ) পথ প্রদর্শক

০৩ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৪:১৯ পিএম | মুন্না


এসএনএন২৪.কম : ২ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উদ্যোগে কেন্দ্রীয়ভাবে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে বিকেল ৪ টায় যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সঃ) উদযাপন উপলক্ষে ‘ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সঃ)’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।  এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। 

উপাচার্য তাঁর ভাষণে মহান আল­াহর অশেষ রহমত স্বরূপ মানবজাতির দু’জাহানের মুক্তির দূত আখেরী নবী মহানবী প্রিয় রসুল (সঃ) এর প্রতি অজস্র সালাম ও দুরুদ পেশ করে বলেন, মহান আল­াহর সৃষ্টির সেরা নেয়ামত হচ্ছেন মহান আল­াহর নূরের আলোয় সৃষ্টি মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ)। 

তিনি বলেন, রসুল (সঃ) জীবন চরিতেই নিহিত রয়েছে ইসলামের প্রকৃত নির্যাস ও প্রকৃত সত্য।  তাই পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রে শান্তি-কল্যাণ-মানবতা প্রতিষ্ঠায় মহানবী (সঃ) জীবন দর্শন অনুসরণ ও বাস্তবায়নের কোন বিকল্প নেই।  তিনি আরও বলেন, বিশ্বব্যাপি জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধ, মিথ্যা-মুর্খতা-বর্বরতা-হানাহানি ও পরাধীনতার শৃংখল থেকে মুক্ত হয়ে অসা¤প্রদায়িক বিশ্ব প্রতিষ্ঠায় জ্ঞানের পথে অগ্রসর হতে এবং আত্মার মুক্তি ও শান্তি অর্জনে বিশ্ব নবী প্রিয় রসুল (সঃ) হচ্ছেন সঠিক পথ প্রদর্শক।  পূর্বাহ্নে মাননীয় উপাচার্য উক্ত মসজিদ কমিটি আয়োজিত ইসলামিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। 

চ.বি. মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল মনছুর-এর সভাপতিত্বে এ আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চ.বি. ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রফেসর ড. মো. তৌহিদ হোসেন চৌধুরী, আরবী বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনুস, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কামরুল হুদা ও শাহজালাল হলের ইমাম-খতিব মাওলানা মুহাম্মদ নূরুল আজম।  সার্বিক অনুষ্ঠান এবং দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব হাফেজ আবু দাউদ মুহাম্মদ মামুন।  অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বস্তরের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।