৩:১৩ পিএম, ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৬ শাওয়াল ১৪৪০




ঈদকে সামনে রেখে ব্যাস্ত রাজবাড়ীর সেমাই কারিগররা

৩১ মে ২০১৯, ০৩:৫১ পিএম | জাহিদ


এম.মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী : মুসলমানদের সবচেয়ে বড় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর।  আর ঈদুল ফিতরের বাকী মাত্র কয়েক দিন।  ঈদে অন্যান্য খাবারের সাথে সেমাইয়ের কদর রয়েছে সবচেয়ে বেশি।  পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে মাংস পোলাওয়ের সাথে একট মিষ্টি ভিন্ন খাবার হিসেবে সেমাইয়ের চাহিদা অতুলনিয়।  এরিমধ্যে সেমাই তৈরীতে ব্যস্ত সময় পার করছেন রাজবাড়ীর সেমাই কারখানা গুলোর কারিগররা।  তার উৎপাদিত সেমাইয়ের নাম ডায়মন্ড।  

রাজবাড়ী বিসিক শিল্প নগরীতে অবস্থিত চারটি সেমাই ফ্যাক্টরিতে রাতদিন কাজ করছে দুই শত শ্রমিক।  শ্রমিকরা জানান, এসব মিলে সবসমইসেমাই উৎপাদন হয়ে থাকে, তবে ঈদকে সামনে রেখে বাজারে চাহিদা থাকায় সেমাই রউৎপাদন বেড়ে যায়।  রাত দিন সেমাই তৈরী করেন ২০০ জন শ্রমিক।  এই সেমাইগুলো নির্ভেজাল, রং ও কেমিক্যাল মুক্ত তাই বাজারে এর চাহিদা অনেকবেশি।  রাজবাড়ী ছাড়াও বৃহত্তর ফরিদপুর এবং অন্যান্য জেলায় চিকন সেমাই বিক্রি হয়ে থাকে। 

রাজবাড়ীর বিসিক শিল্প নগরী এলাকায় দ্বীন ফ্লাওয়ার, শাওন ফুড ইন্ডাষ্ট্রিজ, কাজী ফুড প্রোডাক্ট ও সোহান ফুড প্রোডাক্ট নামে ৪ টি কারখানায় তৈরি হয় সেমাই।  আর মাত্র কয়েক দিন পরেই ঈদ, তাই ঈদকে সামনে রেখে এই ৪ কারখানার প্রায় ২ শতাধিক কারিগর এখন ব্যাস্ত সময় পার করছেন সেমাই তৈরির কাজে।  সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সেমাই তৈরীর কাজ করছেন তারা।  তবে শ্রমিকেরা বলেন মালিক পক্ষ ভালো হওয়ায় তাদের কাজ করতে কোন সমস্যা হয়না।  যে বেতন পান তা দিয়েই চলে তাদেতর সংসার।  তবে রাজবাড়ীতে যে কয়টি সেমাইয়ের মিল রয়েছে এর সব গুলোতেই  পরিস্কার পরিচ্ছন্ন ভাবে সেমাই উৎপাদন হয়ে থাকে। 

সেমাই কারিগররা জানান সারা বছর সেমাই তৈরির কাজ করলেও ঈদের আগে সেমাইয়ের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় রমজান মাসে তাদের কাজের গতি আরো বেড়ে যায়।  প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে তাদের কাজ। 

প্রথমে ভালে  মানের ময়দা,পরিস্কার পানি দিয়ে মিশিয়ে সিদ্ধ করে মেশিনের সাহায্যে সুতার মতো সেমাই তৈরি করা হয়। এরপর রোদে শুকিয়ে ভাজা হয় আগুনে তারপর প্যাকেট জাত করা এবং সবশেষে বাজারজাত করা হয় রাজবাড়ী সহ দেশের বিভিন্ন জেলায়। 

কারিগররা আরো জানান, এই সেমাই তারা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ভাবে প্রস্তুত করে থাকে।  এ চারটি কারখানায় প্রতিদিন ৫০মন সেমাই উৎপাদন হয়ে থাকে।  এখানকার সেমাই রাজবাড়ী, ফরিদপুর, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া, সহ দেশের বিভিন্ন জেলায় রপ্তানি করা হয়ে থাকে। 


keya