৯:৩৫ পিএম, ২০ মার্চ ২০১৯, বুধবার | | ১৩ রজব ১৪৪০




একুশে পদকপ্রাপ্ত নিখিল সেন আর নেই

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:২৭ এএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : নাটকে একুশে পদকপ্রাপ্ত নিখিল সেন আর নেই।  মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮৭ বছর। 

সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। 

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই মেয়ে ও এক ছেলে রেখে গেছেন। 

নিখিল সেন ১৯৩১ সালের ১৬ এপ্রিল বরিশালের কলশ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।  তার বাবার নাম যতীশ চন্দ্র সেনগুপ্ত ও মা সরোজিনী সেনগুপ্ত।  

পরিবারের ১০ সন্তানের মধ্যে চতুর্থ সন্তান ছিলেন তিনি। 

নিখিল সেন বাংলাদেশের একজন প্রতিথযশা নাট্যকার ও সংস্কৃতিকর্মী।  একই সঙ্গে তিনি একজন অভিনয়শিল্পী, নাট্যকার, সাংবাদিক, আবৃতিশিল্পী, ভাষাসৈনিক, মুক্তিযোদ্ধা এবং রাজনীতিবিদ। 

আবৃত্তিতে অবদান রাখার জন্য ২০১৫ সালে শিল্পকলা পদক লাভ করেছেন।  সর্বশেষ নাটকে বিশেষ অবদান রাখার জন্য বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার একুশে পদক লাভ করেন।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার হাতে এই সম্মাননা তুলে দেন। 

নিখিল সেন মাধ্যমিক পাস করে উচ্চশিক্ষার জন্য কলকাতা সিটি কলেজে ভর্তি হন।  সেখান থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করে আবার বরিশালে ফিরে আসেন।  সিরাজের স্বপ্ন নাটকে সিরাজ চরিত্রে অভিনয় করার মধ্য দিয়ে নাট্যজীবন শুরু করেন নিখিল সেন।  এরপর তিনি অনেক নাটকে অভিনয় করেছেন। 

এর আগেও ১৯৯৬ সালে শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা, ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন সম্মাননা ও ২০০৫ সালে শহীদ মুনীর চৌধুরী পুরস্কার পান। 

নিজেই দিকনির্দেশনা দিয়েছেন ২৮টি নাটকে।  নিখিল সেন কমিউনিস্ট আন্দোলনে ভূমিকা রেখেছেন।  ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু হলে নিখিল সেন যুদ্ধে যোগদান করেন। 


keya