৪:২০ এএম, ২২ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | | ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




এখনো ঐক্যবদ্ধ’ ওয়ার্কার্স পার্টি : রাশেদ খান মেনন

২৭ অক্টোবর ২০১৯, ১২:২৭ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম: দলীয় সভাপতি রাশেদ খান মেননের সাম্প্রতিক মন্তব্য ও তার বিরুদ্ধে ওঠা নানান অভিযোগের প্রেক্ষিতে চরম অস্থিরতা বিরাজ করছে ১৪ দলের শরীক ওয়ার্কার্স পার্টিতে। 

দলটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিমল বিশ্বাসের পদত্যাগ ও নতুন করে দল গোছানোর ইঙ্গিতে দেখা দিয়েছে ভাঙনের আশঙ্কা। 

তবে দলটির শীর্ষ নেতারা ভাঙনের আশঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে বলছেন, কিছুটা অস্থিরতা থাকলেও ওয়ার্কার্স পার্টি এখনো ঐক্যবদ্ধ।  

সম্প্রতি বরিশালে জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্মেলনে রাশেদ খান মেনন ‘এই নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারে নি’ - এমন মন্তব্য করার পর আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে রাজনৈতিক অঙ্গনে।  ভোটে যদি নির্বাচিত না হয়ে থাকেন, শপথ নিয়ে সংসদে গেলেন কোন নৈতিকতায়- এমন প্রশ্নবানে জর্জরিত হতে থাকেন পাটির সভাপতি মেনন।  বেরিয়ে আসতে থাকে বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িত থাকার খবরা-খবর। 

এ অবস্থায় পরদিনই আগের অবস্থান থেকে সরে আসেন তিনি।  দাবি করেন, তার বক্তব্যের ভুল ব্যাখা করে বিভ্রান্তি ছড়ানো হয়েছে। 

এরমধ্যে আদর্শচ্যূতির অভিযোগ তুলে পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিমল বিশ্বাসের সদস্য পদ প্রত্যাহারের আবেদনে শুরু হয় নতুন গুঞ্জন।  ভাঙনের আশঙ্কা নিয়ে খবর প্রকাশ করে গণমাধ্যম। 

এ নিয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে, দলছুট নেতাদের নিয়ে নতুন কিছু করার কথা জানান বিমল বিশ্বাস। 

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিমল বিশ্বাস বলেন, ওয়ার্কার্স পাটির এখন যে দল আছে মূল নেতৃত্বে, তাদের মধ্যে থেকে যারা নিজেদেরকে প্রত্যাহার করে নেবেন, তাদেরকে নিয়েই কিছু পদক্ষেপের কথা ভাববো। 

তবে পার্টিতে ভাঙনের কোনো আশঙ্কা নেই বলে মন্তব্য করে পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা জানালেন, ঐক্যবদ্ধ রয়েছে তৃণমূল থেকে কেন্দ্র। 

ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, পার্টি ভাঙাবে না, কারণ পার্টি ভিতরে কিছু মতপার্থক্য থাকে, তা না হলে পার্টিতে গণতন্ত্রের চর্চাও থাকে না।  আমি বলছি, পার্টি প্রায় ৯৫ ভাগ সদস্যসহ সবাই ঐক্যবদ্ধ আছি। 

দু'একজন নেতা চলে গেলে দলে ভাঙন সৃষ্টি হয় না বলে মন্তব্য করলেন সভাপতি রাশেদ খান মেনন। 

রাশেদ খান মেনন বলেন, একজন ব্যক্তি যদি দল থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেয়, আর সেজন্য যদি দলকে ভাঙন বলা হয়, তাহলে আমার কিছু বলার নাই।  আমি মনে করি, আমাদের এই কংগ্রেসের মধ্যে দিয়ে পার্টি আরো ঐক্যবদ্ধ হবে। 

এবারের কংগ্রেসে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি হতে পারেন ফজলে হোসেন বাদশা- এমন গুঞ্জন নিয়ে প্রশ্ন করা হলে মেনন বলেন, সময়ই বলে দেবে সবকিছু। 


keya