১১:১৪ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার | | ৪ সফর ১৪৪০


এবার ঈদে তরুণীদের পছন্দ ফ্লোরাল প্রিন্টের জুতা

০৯ জুন ২০১৮, ০৩:০৮ পিএম | সাদি


নাঈম ইসলাম, শেরপুর প্রতিনিধি :  ঈদে নতুন জামা,শাড়ি, প্রসাধনী কিনেছেন।  পোশাকে আজকাল ম্যাচিং নিয়ে মাথা না ঘামালেও মনোযোগ এক্সেসরিজের দিকে।  বিশেষ করে জুতাতে ম্যাচিং হলেই সাজে পাওয়া যায় ষোল আনা সামঞ্জস্য।  তাই এখন নান্দনিক জুতাটি কিনতে তরুণীদের উপচে পড়া ভিড় জুতার দোকানগুলোতে। 

শেরপুরের বিভিন্ন জুতার দোকান ঘুরে দেখা যায়, ফ্যাশন সচেতন তরুণীদের এবার ঈদে পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ফ্লোরাল প্রিন্টের জুতাগুলো।  আর এসব জুতায় সিনথেটিকস, লেদার ও ফেব্রিকস এমব্রয়ডারিতে আনা হয়েছে গর্জিয়াস লুক।  কালো, সাদা ও বাদামী রঙের উপর লাল, কমলা, পেস্ট, বøু, গোলাপী সহ লেমন, হলুদ, মিন্ট রঙের ফুলেল ছাপের জুতাগুলো নজর কেড়েছে তরুণীদের বললেন বিক্রেতারা। 

হঠাৎ বৃষ্টির সাথে এই রৌদ্রতপ্ত পরিবেশ যেন ঈদ এর শুভ বার্তা বয়ে আনছে।  ঈদ যেহেতু বর্ষা আর গরমের মাঝামাঝিতে আসছে, তাই বর্ষার মৌসুমকে প্রধান্য দিয়ে রঙ আর নকশায় থাকছে বৈচিত্র্য।  আউটলুকে বেশ গর্জাস আর সিম্পলিসিটি তো আছেই।   জুতার দোকানগুলো এবার ঈদে উৎসবের রঙের পাশাপাশি প্রধান্য দিয়েছে বর্ষার থিমকেও।  গরম ও বর্ষার বিবেচনায় উৎসবের আমেজে জুতায় জৌলুসের সাথে প্রধান্য পাচ্ছে আরামের দিকটিও। 

ঈদ বাজারে ছিমছাম হিল ও স্লিপার ধরনের জুতায় ডিজাইনের ভিন্নতা আনতে নকশায় জরি, চুমকি, কুন্দন, বোতাম,  ফিতা আর কৃত্রিম পাথরের ব্যাবহার করা হয়েছে।  সাধারণত সিনথেটিক ও লেদারের জুতার ফিতাতে থাকছে ক্রস, রাউন্ড, সেমি রাউন্ড কাট।  স্ট্র্যাপের জুতায় ফিতার ব্যবহারে নকশাটাও হয় বেশ বাহারি।   গোড়ালি ও সামনের অংশে বাহারি রঙের ফিতা যুক্ত জুতাও রয়েছে।  রয়েছে বক্সহিল, সেমি হিল, ওয়েজেস হিল, ক্লোজড শু, ব্যালোরিনা শু।  তবে ফিতা দিয়ে নকশা করা ওয়েজেস হিলের সংগ্রহ চোখে পড়ার মতো। 

এপেক্স, অঙশ্রী, ইয়াকুব, কাকন শু, আযাদ শু, বাটাসহ বিভিন্ন দোকানে রয়েছে হালফ্যাশনের সব ধরনের জুতার বিপুল সমাহার।  এছাড়াও থাইল্যান্ড-ইতালি থেকে আসা বিভিন্ন স্লিপার ও হিল সু পাওয়া যাবে লট্টো, রিচম্যান সহ বিভিন্ন শো-রুমে।   দামের বিষয়টি নির্ভর করে জুতার উপাদান ও উপকরণের উপর। 

পোশাকের সাথে ম্যাচিং করা জুতার প্রতি তরুণীদের আর্কষন যেকোন উৎসবে একটু বেশিই।  আর এবার বাহারি সব ফ্লোরাল প্রিন্টের জুতা নিয়ে জমজমাট হতে যাচ্ছে ঈদ আনন্দ।  এখন শুধু অপেক্ষা, বাজার ঘুরে রুচির সাথে সমন্বয় করে নিজের পছন্দের জুতাটি বুঝিয়ে নেওয়ার। 


keya