২:২৭ এএম, ২০ জুন ২০১৮, বুধবার | | ৬ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

প্রফেসর এ,কে,এম ছায়েফ উল্যা

কাগতিয়া মাদরাসা দ্বীনি শিক্ষার মডেল

১১ মার্চ ২০১৮, ০৬:৩৩ পিএম | ফখরুল


‘দ্বীনি শিক্ষা মুসলিম জাতির মূল শিক্ষা।  এ শিক্ষাকে সহজভাবে বিশে^র মানুষের কাছে পৌঁছানোর জন্য প্রয়োজন দ্বীনি শিক্ষার সাথে আধুনিক শিক্ষার সমন্বয়।  এই দুই শিক্ষার সমন্বয় ঘটলে একদিকে যেমন কুরআন সুন্নাহর চর্চা হয় অন্যদিকে সাধারণ মানুষের কাছে ইসলামকে উপস্থাপন করা হয়। 

এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাগতিয়ার মহান মোর্শেদ গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু নিজের সর্বস্ব বিলীন করে গড়ে তুলেছেন কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এম. এ. মাদরাসা।  যে মাদরাসার একাডেমিক অবকাঠামো, আধুনিক কম্পিউটার ল্যাব, উন্নত মানের লাইব্রেরি, তথ্য-প্রযুক্তি নির্ভর মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম, বিশাল খেলার মাঠ ইত্যাদি আধুনিক ব্যবস্থাপনা দেখে মনে হয় কাগতিয়া মাদরাসা দ্বীনি শিক্ষার মডেল। 

বহমান কাগতিয়া খালের মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশ এ মাদরাসাকে সৌন্দর্যমন্ডিত করেছে।  গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু’র দু’আর বদৌলতে এ মাদরাসার খ্যাতি সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ছে।  আমি কাগতিয়া মাদরাসার কথা অনেক শুনেছি কিন্তু আজ মাদরাসার সুশৃংখল ও মনোমুগ্ধকর  পরিবেশ দেখে আমি সত্যিই অভিভূত।  বর্তমান অধ্যক্ষ মহোদয়ের দক্ষতা, অভিজ্ঞতা, বিচক্ষণতার কারণে এ মাদরাসা দিনদিন উন্নতির দিকে এগিয়ে চলেছে। 

এ মাদরাসার শাখা চট্টগ্রাম মহানগর ক্যাম্পাস মন জুড়ানো একটি ক্যাম্পাস।  গ্রামের গন্ডি পেরিয়ে এ মাদরাসার প্রসারতা মহানগরেও ছড়িয়ে পড়েছে। 

এমন মডেল মাদরাসা বাংলাদেশে সৃষ্টি হলে অচিরেই এ দেশ একটি সমৃদ্ধশালী উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত হবে।  সন্ত্রাস, দূর্নীতি, জঙ্গীবাদমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার এ মাদরাসার ভূমিকা অনস্বীকার্য। ’ বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর এ,কে,এম ছায়েফ উল্যা এ কথা বলেন। 

তিনি গতকাল ১০মার্চ, শনিবার চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এম. এ. মাদরাসার ৮৬তম সালানা জলসায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। 

সালানা জলসায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ফেডারেশন এর সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল মনছুর, চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজ এর অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ আবুল হাসান, ১১নং পশ্চিম গুজরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন মোহাম্মদ আরিফ (বি.এ), এলবিয়ন ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড এর ব্যবস্থপনা পরিচালক আলহাজ্ব মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন প্রমূখ। 

এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন হযরতুলহাজ্ব আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ ইব্রাহিম হানফি, হযরতুলহাজ্ব আল্লামা মুফতি আনোয়ারুল আলম ছিদ্দিকী, হযরতুলহাজ্ব আল্লামা এমদাদুল হক মুনিরী, আল্লামা আশেকুর রহমান ও মাওলানা মুহাম্মদ সেকান্দর আলী। 
এদিকে ৮৬তম সালানা জলসা উপলক্ষে অর্ধকিলোমিটার জুড়ে সাজ সাজ রব বিরাজ করছিল। 

ভাসমান দোকানীরা পসরা সাজিয়ে বেচাবিক্রী করতে দেখা যায় প্রতি বছরের ন্যায়।  সভা উপলক্ষে বিশাল আয়তনের মাদরাসা ভবনকে সাজসজ্জিত করা হয়েছে।  মাহফিলে বিভিন্ন ওলামায়ে কেরামের বয়ান শুনে অনেকে নিজের আবেগকে ধরে রাখতে পারেননি। 

হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে কাগতিয়া মাদরাসাসহ আশপাশের এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে যায়।  সভা শেষে মিলাদ-কিয়াম-মুনাজাতে মাদ্রাসার উত্তোরোত্তর উন্নতি ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক কাগতিয়ার গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আন্হু’র ফুয়ুজাত কামনা করা হয়।