৮:৪২ এএম, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, রোববার | | ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২




কারা পাবেন ভ্যাকসিন?

০৩ জানুয়ারী ২০২১, ১০:০১ এএম |


এসএনএন২৪.কমঃ দেশে করোনা ভ্যাকসিন আসার সম্ভাবনা তৈরি হওয়ার পর এবার সবার আগ্রহের কেন্দ্রে কারা পাচ্ছেন ভ্যাকসিন।  স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইঙ্গিত দিলেন, যাদের ভ্যাকসিন পাওয়ার মতো অবস্থা রয়েছে, তাদের সবাইকেই ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে। 

শনিবার (০২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মানিকগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বললেন, ‘ভ্যাকসিন পাওয়ার বয়স যাদের হয়েছে, তাদের ভ্যাকসিন দিব। তবে জনসংখ্যার উল্লেখযোগ্য অংশই ভ্যাকসিন নিতে পারবে না নানা বিধিনিষেধের কারণে। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বললেন, ‘১৮ বছরের নিচে যারা আছেন, তাদেরকে ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব নয়।  কারণ এ বয়সের ওপর ভ্যাকসিন ট্রায়াল করা হয়নি পৃথিবীর কোথাও, সেজন্য আমরা দিব না।  ১৮ বছরের নিচে আমাদের জনসংখ্যার ৪০ শতাংশ।   অর্থাৎ প্রায় ৪-৫ কোটি।  তাদের ভ্যাকসিনের প্রয়োজন হবে না।  বিদেশে যারা আছে, তাদেরও হিসেব করেছি।  তারা তো বিদেশেই আছে, তাদের তো এ মুহূর্তে ভ্যাকসিনের প্রয়োজন হবে না।  প্রায় ৩৫-৪০ লাখ মায়েরা গর্ভবতী থাকেন, তাদের ভ্যাকসিন দিতে হবে না।  যারা গুরুতর অসুস্থ, তাদের ভ্যাকসিন দেওয়া যাবে না। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সব মিলিয়ে আমরা দেখেছি ৬ কোটি-সাড়ে ৬ কোটি মানুষের ভ্যাকসিন এ মুহূর্তে প্রয়োজন নাই। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘তাহলে হাতে রইল ১০ কোটি লোক।  প্রায় সাড়ে ৫-৬ কোটির ব্যবস্থা হয়ে গেছে।  আর ৪ কোটি লোকের চিন্তা আমাদের করতে হবে।  সে চিন্তা নিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।  যাতে বাকি দেওয়া যায় সে ব্যাপারে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।   সেটাও ইনশাআল্লাহ আমরা দিতে পারবো।  যে যে সোর্স থেকে আমাদের দিবে, সে সোর্স থেকে আমরা নিব।  আমাদের সকল সোর্সের সাথে কথা বলা আছে। '

ভ্যাকসিন পাওয়ার ক্ষেত্রে কারা অগ্রাধিকার পাবে, তা জাতীয় কমিটি ঠিক করবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। 

তিনি বলেন, 'আমাদের তালিকাটা তৈরি হচ্ছে একটা জাতীয় কমিটির মাধ্যমে।  যে কমিটির নেতৃত্বে দিচ্ছেন মুখ্য সচিব।  আবার জেলা উপজেলা পর্যায়েও কমিটি তৈরি হচ্ছে।  সে কমিটির মাধ্যমে কারা ভ্যাকসিন পাবে, সেটাও নির্ণয় করা হচ্ছে।  এবং তারা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে মিলে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করবেন। 

তবে ভ্যাকসিন আসার পরও সাবধানতায় যেন ঢিলেমি না হয়, সে বিষয়ে সতর্ক করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।  জাহিদ মালেক বলেন, ‘কোভিড ভ্যাকসিন সামনে কার্যকরী কতটুকু হবে, এটা সময়ই বলে দেবে।  ভ্যাকসিন আসার পরই আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মানবো না, এটা কিন্তু হবে না।  ভ্যাকসিন পাওয়ার পরেও আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।   সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে।  এটা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থারও গাইডলাইন।