১১:৫১ এএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের খেলার মাঠ পরিষ্কারে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:৪৬ পিএম | মাসুম


এস এম জামাল, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ মাঠটি প্রায় ছয় মাস ধরে জলাশয়ে পরিণত হয়েছে।  সেখানে কচুরিপানা জমেছে।  কলেজ মাঠে গজিয়ে ওঠা কচুরিপানা দেখে যেন মনে হয় খালবিলের মাঠ। 

খেলার মাঠের বেহাল দশায় শিক্ষার্থীদের মাঝে চরম ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছিলো।  এ নিয়ে পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশও হয়েছে পাশাপাশি সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও সমালোচনার ঝড় বয়েছে।  বারবার আশার কথা শুনিয়েছেন কলেজ কতৃপক্ষ।  কিন্তু সে আশায় গুড়েবালি দিয়ে কলেজ মাঠে গজিয়ে ওঠা কচুরিপানা সরানোর উদ্যোগ নিয়েছে ছাত্রলীগ। 

শুক্রবার সকালে কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাদ আহম্মেদ ও সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ স্বপন হোসেনের নেতৃত্বে শুরু হয় আগাছা দমনের কাজ। 

কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাদ আহম্মেদ জানান, তরুণরাই আমাদের ভবিষ্যৎ।  আমরা অনেক ভালো কাজের সারথী হয়েছি।  এখনো চলমান রয়েছে এসব ভালো কাজের।  আমি মনে করি 'দশের লাঠি, একের বোঝা'।  এই কলেজ মাঠের বেহালদশা আমার একার পক্ষে সম্ভব ছিলো সংস্কার করার।  আমার প্রাণের সংগঠন ছাত্রলীগ ও কলেজ ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীরা মিলে তিনদিন নিরন্তর পরিশ্রম করে এই মাঠটিকে ব্যবহার উপোযাগী করে গড়ে তুলতে পারবো। 

ছাত্রলীগের এই নেতা আরও জানান, প্রতিটি স্থানকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা নিজেদের দায়িত্ববোধের মধ্যে পড়ে।  সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য আমাদের নিজ দায়িত্ব অন্যের ঘাড়ে না চাপিয়ে নিজেদের সেগুলো সম্পন্ন করার মানসিকতা তৈরি করতে হবে।  তাহলে সাধারণ মানুষ আমাদের সম্মানের সঙ্গে গ্রহণ করবে। 

কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি স্বপন জানান, ছাত্রলীগ বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিক।  বঙ্গবন্ধুর আর্দশ বুকে ধারণ করে আগামী প্রজন্মের ছাত্রছাত্রীদের স্বাধীনতার চেতনা জাগ্রত করা হবে।  আমরা কলেজ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত কলেজের সার্বিক উন্নয়নের সাথে আছি।  কলেজের খেলার মাঠ আবারও তার যৌবন ফিরে পায়।  ছাত্রদের খেলাধূলয় মূখরিত হয়ে থাকবে এই মাঠ।  এই জন্যে সকলের অংশগ্রহণ আমাদের প্রাণবন্ত করে তুলেছে। 

কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি আরশেদ আলী, সদর থানা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক জয়নাল আবেদিন এবং কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মাহাবুবু আলম লিমন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিন আলম, মাহাফুজুর রহমান শাওনসহ অর্ধশত নেতাকর্মী এ কর্মসূচীতে অংশ নিচ্ছে। 

ছাত্রলীগের এই মহতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আলোচনাও হচ্ছে। 

একজন লিখেছেন, ওঠেন নবীনদের ছোঁয়ায় দূর  হয়ে যাক সব জঞ্জাল গড়ে উঠুক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা !!

হাফিজ মাহমুদ লিখেছেন, বিদ্যার সঙ্গে বিনয়,শিক্ষার সঙ্গে দীক্ষা, সমস্ত মানবীয় গুণাবলির সংমিশ্রণ ঘটিয়ে সাদ আহমেদের নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগ।