৯:৪১ পিএম, ২৪ জুন ২০১৯, সোমবার | | ২০ শাওয়াল ১৪৪০




খাবার ঘরে বাঙালিয়ানা

১৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫৯ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : বছর ঘুরে আবার এসেছে পহেলা বৈশাখ।  বৈশাখের দিন ঘরে ঘরে বসে পারিবারিক মিলনমেলা।  অতিথি আপ্যায়নে খাবারের মেন্যুর পাশাপাশি খাবার ঘরের সাজে মনোযোগ দেওয়া চাই। 

ঘরের সাজ পরিবর্তন মানেই অনেক খরচের ব্যাপার, বিষয়টি কিন্তু তা নয়।  প্রয়োজন অল্প কিছু সরঞ্জাম আর সঠিক পরিকল্পনা।  এখনকার ফ্ল্যাটবাড়িতে খাবার ঘর ছোট হয়।  বেশির ভাগ ক্ষেত্রে টেবিল রাখার পর জায়গা তেমন অবশিষ্ট থাকে না।  তাই হালকা নকশার ছিমছাম আসবাব বেছে নেওয়া ভালো।  এতে দেখতে ভালো লাগবে আর ঘরটাও খোলামেলা মনে হবে। 

পহেলা বৈশাখ রঙিন উত্সব।  তাই অন্দর সজ্জায় রং নিয়ে নিরীক্ষা করা যেতে পারে।  উজ্জ্বল যেকোনো একটি রংকে প্রাধান্য দিয়ে ঘর সাজাতে পারেন কিংবা একাধিক রঙের খেলা থাকতে পারে ঘরের ক্যানভাসে।  দেয়ালের রং বদলানো খরচসাপেক্ষ ব্যাপার।  বদলে ইন্টেরিয়র ফেব্রিকস বদলে ফেলুন।  জানালার পর্দা, রানার, ম্যাট ও টেবিলকভার বেছে নিন পছন্দের উজ্জ্বল রং।  লাল, কমলা, হলুদের মতো উষ্ণ রং রাখতে পারেন। 


এসব উষ্ণ রঙের সঙ্গে নীলের যেকোনো শেড যোগ করবে শীতলতার ছোঁয়া।  জানালার পর্দায় দুটি কমলা বা হলুদ পর্দা দিয়ে মাঝখানে নীল বা আকাশি পর্দা ব্যবহার করুন।  আবার পুরোপুরি বৈশাখী লুক চাইলে বেছে নিতে পারেন লাল-সাদা।  একইভাবে টেবিল ক্লথ, রানার বা ম্যাটেও একইভাবে সামঞ্জস্যপূর্ণ রং ব্যবহার করুন।  সাদামাটা দেয়াল সাজিয়ে নিন মাটির সরা আর মুখোশ দিয়ে।  এ রকম ছোট ছোট পরিবর্তনেই ঘর হয়ে ওঠে আরো মায়াময় ও উত্সবমুখর। 

রং ছাড়াও খাবার ঘরের সাজে দেশীয় লুক আনতে বিভিন্ন ধরনের লোকজ অনুষঙ্গ ব্যবহার করা যেতে পারে।  টেবিল ম্যাট হতে পারে বাঁশ, বেত, শতরঞ্জি বা চটের তৈরি।  তৈজসপত্রে রাখুন মাটির ছোঁয়া।  মাটির গ্লাস, প্লেট, বাটি, পানির কুঁজো, কাঠ ও নারকেল মালার চামচ সহজেই দেশীয় আমেজ ফুটিয়ে তোলে।  লাল-সাদা থিমে লাল রঙের টেবিল ম্যাটে চিনামাটির তৈজস খাবার টেবিলে যোগ করবে ভিন্ন মাত্রা।  বড় টেবিল হলে মাঝখানে দেশীয় থিমের একটা ক্যান্ডেল স্ট্যান্ড থাকতে পারে।  উত্সবের আমেজ আনতে কয়েকটি রঙিন সুগন্ধি মোম জালিয়ে দিন। 

সবশেষে ঘরের সাজে পরিপূর্ণতা আনুন কিছু তাজা ফুল ও ইনডোর প্ল্যান্ট দিয়ে।  একটা মাটির থালায় কিছু বেলি ফুল রেখে টেবিলে রাখুন।  স্নিগ্ধতা ছড়িয়ে যাবে চোখ আর মনেও।  ঘরের কোণে দু-একটি মাটির টবে ইনডোর প্ল্যান্টের সঙ্গে গাছের গুঁড়ি আর ছোটখাটো মাটির শিল্পকর্ম বসালে দেখতে আরো ভালো লাগবে।