১:৪৬ পিএম, ২০ জুন ২০১৮, বুধবার | | ৬ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

চ.বি. ক্রীড়া উৎসব ২০১৮ উদ্বোধন

০৪ জানুয়ারী ২০১৮, ০৩:২৫ পিএম | মুন্না


এসএনএন২৪.কম : বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম প্রতিষ্ঠিত হল আলাওল হলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০১৮ উদ্বোধনের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া উৎসব শুরু হয়েছে।  সকাল ৯.৩০ টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে এ ক্রীড়া উৎসব উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ফরিদ উদ্দিন আহামদ। 

উপাচার্য তাঁর ভাষণে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা, স্বাগত ও অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার বঙ্গবন্ধু তনয়া প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর কাঙ্খিত স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণের প্রয়াসে দেশে সৎ, দক্ষ ও আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদনের লক্ষ্যে একটি যুগোপযোগী শিক্ষাদর্শন ঘোষণা করেছেন।  এ শিক্ষাদর্শনের মৌলিক বিষয় হচ্ছে ক্রীড়া-সংস্কৃতিকে যুক্ত করে আধুনিক বিজ্ঞান মনস্ক গুণগত শিক্ষা। 

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রধানমন্ত্রীর এ শিক্ষাদর্শন সফল বাস্তবায়নে শিক্ষার পাশাপাশি ক্রীড়া ও সংস্কৃতি চর্চার একটি মনোরম পরিবেশ সৃষ্টিতে নিরলসভাবে কাজ করছে। 

প্রসঙ্গক্রমে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের আলোকিত ও পরিপূর্ণ মানস গঠনে নেতিবাচক কোন কর্মকান্ড যাতে স্পর্শ করতে না পারে এ জন্য ক্রীড়াবান্ধব সংস্কৃতি বাস্তবায়ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম লক্ষ্য। 

তিনি আরও বলেন, ক্রীড়ার সাথে নিবীড়ভাবে সম্পর্কযুক্ত শৃংখলা, নিয়মানুবর্তিতা, সময়ানুবর্তিতা সহ দেহ-মনের প্রাণস্পন্দন।  তাই হার-জিৎ প্রতিযোগিতার মুখ্য উদ্দেশ্য নয়, প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ বড় কথা।  উপাচার্য এ ক্রীড়া উৎসবের সার্বিক সফলতা কামনা করেন।  পরে তিনি প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।     

উপ-উপাচার্য সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, আলোকিত সমাজ গঠনে ক্রীড়ার গুরুত্ব অপরিসীম।  তিনি বলেন, যে কোন অপশক্তিকে নিধন করে সুন্দরকে জয় করতে চাই সুস্থ দেহ ও সুন্দর মন।  এ জন্যই এ ক্রীড়া উৎসব।  তিনি ক্রীড়া উৎসবের সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করেন। 

আলাওল হলের প্রভোস্ট প্রফেসর এস. এম. সালামত উল্যা ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) জনাব মো. মোয়াজ্জেম হোসেন। 

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে জাতীয় সংগীতের সুর ও মুর্চ্ছনায় উপাচার্য জাতীয় পতাকা, উপ-উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এবং উক্ত হলের প্রভোস্ট যৌথভাবে হল পতাকা ও শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক অলিম্পিক পতাকা উত্তোলন করেন।  মশাল হাতে মাঠ প্রদক্ষিণ করেন হলের কৃতি ক্রীড়াবিদ মো. আবদুল হালিম। 

বিচারকদের পক্ষে প্রধান বিচারক ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রফেসর আবু মোহাম্মদ আতিকুর রহমানকে এবং ক্রীড়াবিদদের পক্ষে কৃতি ক্রীড়াবিদ রুহুল আমীনকে উপাচার্য শপথ বাক্য পাঠ করান।  আলাওল হলের আবাসিক শিক্ষক মো. আসাদুল হকের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয় ক্রীড়াবিদদের মার্চপাস্ট। 

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিনবৃন্দ, শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ, রেজিস্ট্রার, হলের প্রভোস্টবৃন্দ, প্রক্টর ও সহকারী প্রক্টরবৃন্দ, উক্ত হলের হাউজ টিউটরবৃন্দ, বিভাগীয় সভাপতি ও ইনস্টিটিউটের পরিচালকবৃন্দ, অফিস প্রধানবৃন্দ, অফিসার সমিতির, কর্মচারী সমিতি ও কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ এবং বিপুল সংখ্যক ক্রীড়ামোদী ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠান শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হলের সিনিয়র পেশ ইমাম গ্রেড-১ মাওলানা মো. হাসানুজ্জামান এবং অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ডেপুটি রেজিস্ট্রার (তথ্য) জনাব মো. ফরহাদ হোসেন খান।