২:৪৫ এএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার | | ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

চরফ্যাশনে বহুল আলোচিত নীলকমল ইউপি নির্বাচন হতে আর কোনো বাঁধা নেই

০৮ ডিসেম্বর ২০১৭, ১২:১১ এএম | নিশি


মোঃ আমজাদ হোসেন,ভোলা প্রতিনিধিঃ ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার বহুল আলোচিত নীলকমল ইউনিয়নের নির্বাচন যথা সময়েই হচ্ছে এবং ২৮ ডিসেম্বর।  সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার জজ হাইকোর্টের দেয়া আদেশ স্থগিত করায় পূর্বের সময় সুচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে ওই ইউনিয়নের নির্বাচন। 

নির্বাচন কমিশন নীলকমল ইউনিয়নের নির্বাচনী তফসিল ঘোষনা করার পর সীমানা বিরোধ দেখিয়ে হাইকোর্ট ডিভিশনে রিট পিটিশন দাখিল হয়।  হাইকোর্ট শুনানি করে ওই ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত করে দেন। 

হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ সুপ্রিমকোর্টের চেম্বার জজে আপিল করে।  আপিলের (সিপি)-৪৩৬৫/১৭ গতকাল ৬ ডিসেম্বর এই সিপি নম্বর এর শুনানি শেষে চেম্বার জজ হাইকোর্ট ডিভিশনের দেয়া আদেশকে স্থগিত করে দেন। 

চেম্বার জজের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি এ্যার্টনি জেনারেল মাহবুবে আলম এ মামলা পরিচালনা করেন। 

চরফ্যাসন উপজেলা নির্বাচন অফিসার রফিকুল ইসলাম বলেন, সুপ্রিমকোর্টের এই আদেশের ফলে চরফ্যাসনের নীলকমল ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে আর কোন বাধা নাই। 

সুপ্রিমকোর্টের চেম্বার জজ এর এ আদেশের কপি নির্বাচন অফিসসহ সকল দপ্তরে পৌঁছার  পর এলাকায় পুনরায় নির্বাচনের আমেজ শুরু হয়েছে।  আজ প্রতীক বরাদ্ধ দেয়া হয়েছ।  ভোট গ্রহণ ২৮ ডিসেম্বর। এ প্রসংগে নৌকা প্রতীক বরাদ্দ পাওয়া মোঃ আলমগীর হেসেন হাওলাদার বলেন নীলকমলের সর্বস্তরের জনগণের স্বদিচ্ছায় আমি তাদের সেবা করার জন্যেই নির্বাচনে নেমেছি। তাছাড়া দলীয় ভাবেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়ে সম্মানিত করেছন। 

নীলকমলে আমার জনপ্রিয়তা দেখে ঈর্ষার্নিত হয়ে প্রতিপক্ষ নির্বাচন বানচাল করার পায়তারায় লিপ্ত হয়েছিল। সে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে অবশেষে মহামান্য হাইকোর্টৈর রায়ে পরাজিত হয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছে। আমি আশা করছি মহান আল্লাহর ইচ্ছায় প্রধানমন্ত্রীর মান রাখতে পারবো এবং এজন্য নীলকমলের মানুষ আমাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জয় যুক্ত করবেন।