১০:৩০ এএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার | | ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

ছেলের জন্মদিনে কেক কাটলেন খালেদা

২০ নভেম্বর ২০১৭, ০১:৫৩ এএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ৫৩ বছরে পা দিলেন।  সোমবার জন্মদিনের প্রহর ১২টা ১মিনিটে কেক কাটেন তার মা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।  ১৯৬৫ সালের এই দিনে তিনি জন্মগ্রহণ করেন।  গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে রোববার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে ৫৩ পাউন্ডের কেক কাটেন।  এর আগে তার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে মোনাজাত করা হয়। 

তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে প্রথমে বিএনপির পক্ষ থেকে পরে ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, ঢাকা মহানগর বিএনপি (উত্তর ও দক্ষিণ) ও মহিলা দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে আসা কেক কাটেন খালেদা জিয়া।  গুলশান কার্যালয়ে ৮টি কেক কেটে তারেক রহমানের জন্মদিন উদযাপন করা হয় বলে জানান চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান।  এরপর লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমানের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেন খালেদা জিয়া।  তিনি ছেলেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান। 

এ ছাড়া বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, নজরুল ইসলাম খান, ড. আব্দুল মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, উপদেষ্ঠা আমান উল্লাহ আমান ও প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধূরী এ্যানীও মোবাইল ফোনে তারেক রহমানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান। 

তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষ্যে গুলশান কার্যালয় সাজানো হয় বর্ণিল সাজে।  দলের নেতাকর্মীরাও ভীড় জমান কার্যালয়ে উপস্থিত হন বিএনপি সিনিয়র নেতা থেকে শুরু করে অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতারা। 

কেক কাটার অনুষ্ঠানে অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমেদ, অধ্যাপক মাহবুবউল্লাহ, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও উপস্থিত ছিলেন।  আরও উপস্থিত ছিলেন-বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, বিএনপি নেতা আলতাফ হোসেন চৌধুরী, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, বরকত উল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ আজম খান, নিতাই রায় চৌধুরী, গিয়াসউদ্দিন কাদের চোধুরী শওকত মাহমুদ, জয়নাল আবেদীন, আবদুস সালাম, রুহুল কবির রিজভী, মাহবুব উদ্দিন খোকন, মজিবুর রহমান সারোয়ার, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, মীর সরফত আলী সপু, বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস প্রমূখ।  বিএনপির অঙ্গসংগঠনের মধ্যে মহানগর দক্ষিণের হাবিব উন নবী খান সোহেল, কাজী আবুল বাশার,

উত্তরের মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু, আহসানউল্লাহ হাসান, যুব দলের সাইফুল ইসলাম নিরব, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মোরতাজুল করীম বাদরু, স্বেচ্ছাসেবক দলের শফিউল বারী বাবু, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, মহিলা দলের আফরোজা আব্বাস, সুলতানা আহমেদ, ছাত্র দলের রাজিব আহসান, আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমূখ নেতারা। 

এদিকে দীর্ঘদিন পর কার্যালয়ে আসেন দুই মহিলা নেত্রী শিরিন সুলতানা এবং রেহেনা আক্তার রানু।