১:০২ এএম, ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৬ শাওয়াল ১৪৪০




ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আশঙ্কা

জইশ-এর টার্গেটে ভারতের মুখ্যমন্ত্রীসহ শীর্ষ রাজনীতিবিদরা

২৩ নভেম্বর ২০১৭, ০৮:৪৩ এএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : ভারতের ক্যাবিনেট মন্ত্রীদের হত্যার জন্য স্পেশাল স্কোয়াড (বিশেষ দল) গঠন করেছে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ (জেইএম)।  তবে শুধু সিনিয়র ক্যাবিনেট মন্ত্রীরাই নয়, ভারতের বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, কয়েকজন হাইপ্রোফাইল মুখ্যমন্ত্রী’কে হত্যা করার জন্য এই স্পেশাল স্কোয়াড গঠন করেছে সংগঠনের প্রধান মাওলানা মাসুদ আজহার। 

এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা।  সূত্রে খবর, গত সপ্তাহে দিল্লিতে গোয়েন্দা বৈঠকে বিভিন্ন গোয়েন্দা এজেন্সি ও নিরাপত্তা এজেন্সিকে এই তথ্য দেওয়ার পাশাপাশি সতর্কও করা হয়েছে।  

প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তান মদদপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ ও লস্কর-ই-তৈয়বা ইতিমধ্যেই এ ব্যাপারে একযোগে কাজ শুরু করেছে বলে খবর।  ইতিমধ্যেই বাছাই করা কয়েকজনকে নিজ নিজ দায়িত্ব দিয়ে দেওয়া হয়েছে এই নাশকতা সংগঠিত করার জন্য এবং শীর্ষ স্তরের নির্দেশ পেয়ে সীমান্ত পেরিয়ে তারা ভারতে প্রবেশ করেছে বলেও গোয়েন্দাদের ধারণা। 

সম্প্রতি ভারতের জম্মু-কাশ্মীরে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জয়ৈশ প্রধান মাসুদ আজাহারের ভাইপো তালহা রশিদ’এর নিহত হওয়ার পরই তার প্রতিশোধ নিতেই ভারতের শীর্ষ রাজনীতিবিদ, মন্ত্রীদের ওপর হামলা চালাতে চায়।  যেহেতু ভারতের মাটিতে একাধিক নাশকতা সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠেছে এই তালহা রশিদের বিরুদ্ধে, তাই তার মৃত্যু জয়ৈশ’এর কাছে একটা বড় আঘাত বলে মনে করা হচ্ছে।  

দুই দিন আগেও দক্ষিণ কাশ্মীরের বুদগাম এলাকায় সেনাবাহিনীর গুলিতে তিন জইশ জঙ্গি নিহত হয়।  জঙ্গিদের কাছ থেকে একটি স্বয়ংক্রিয় রাইফেল, পিস্তল, গ্রেনেড উদ্ধার করে পুলিশ।  নিহত তিন জঙ্গির মধ্যে মোহম্মদ মকবুল মাল্লা ও গরহর আহমেদ’এর বাড়ি বাঁদজু এলাকায় অন্যদিকে আজাদ আহমেদ লোন’এর বাড়ি পুলওয়ামা জেলার কাকাপোরাতে।