৮:২৬ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৯, রোববার | | ১৫ শা'বান ১৪৪০




ভোলার স্বপ্নবাজ সেই ২২ তরুণের

‘জাগো’ আজ মানবকল্যাণের দিশারি

০৫ মে ২০১৭, ০৫:২২ এএম | সাদি


মো:আমজাদ হোসেন,ভোলা: ভোলা জেলার চরফ্যাসন উপজেলার দুলারহাটের ২২ স্বপ্নবাজ তরুণ লেখাপড়ার পাশাপাশি স্বপ্ন দেখতেন মানবতার সেবায় নিজেদের নিয়োজিত করার।  ভারতের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এ পি জে আবদুল কালামের জীবনাদর্শ-তাঁর বাণী ছিল তাদের অনুসরণের পাথেয়। 

কিভাবে দ্বীপ জনপদ ভোলার বঞ্চিত-অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো যায়-স্বপ্নবাজ এই তরুণরা সেই স্বপ্নের বিভোর থাকতেন।  এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালের ২৪ মার্চ ‘তুচ্ছ নয় রক্তদান, বাঁচাতে পারে একটি প্রাণ’ স্লোগানে ‘জাগো’ নামে একটি অরাজনৈতিক সংগঠনের গোড়াপত্তন করেন তারা। 

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এ পর্যন্ত অসংখ্য মুমূর্ষু রোগীদের রক্তদান, বিভিন্ন জায়গায় বিশেষ করে দুলারহাট বাজার, দুলারহাট কলেজ, ঘোষের হাট বাজারে ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে বিভিন্ন পর্যায়ের লোকদের রক্তের গ্রুপ নির্নয়, অসহায় ও দুস্থ লোকদের আর্থিক সহযোগিতা সহ শীতবস্ত্র বিতরণ, আঞ্চলিক গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের মেধাবৃত্তি সহ বিভিন্ন ধরনের সামাজিক কর্মকান্ডে সরব উপস্থিতি ছিল এ সংগঠনের। 

এই সংগঠনের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অসংখ্য লোক উপকৃত হয়েছে।  এছাড়াও সংগঠনের নির্বাহী সদস্যদের দ্বারা এ পর্যন্ত প্রায় ৪০ জন মুমূর্ষ রোগীকে রক্ত সরবরাহ করা হয়েছে।  ‘জাগো’ সংগঠনের এই সমস্ত কার্যক্রমে অনুপ্রাণিত হয়ে স্থানীয় অনেক গুরুত্বপু্র্ন ব্যক্তিরা সংগঠনটির পাশে দাঁড়িয়েছে।  বিভিন্ন কার্যক্রমে তারা সকলক্ষেত্রে সহযোগীতা করে যাচ্ছেন।  এই সংগঠনের কার্যক্রমে সন্তুষ্ট হয়ে বহু কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানও এগিয়ে এসেছে সহযোগিতায়। 

‘জাগো’র অন্যতম সদস্য মাহমুদ সুজন জানান, এটি একটি অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান।  এখনো পর্যন্ত আমরা কোন ধরনের রাজনৈতিক সহায়তা নিইনি।  তিনি বলেন, কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবী মিলে নিজেদের অর্থায়নে এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে স্পন্সরের মাধ্যমে এই কার্যক্রমগুলো পরিচালনা করছি, আজ ‘জাগো’ ২য় বর্ষে পদার্পন করেছে, আশা করি গত বছরের তুলনায় এই বছর আরো ব্যাপক অাকারে কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবো। ’

চরফ্যাসন উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন লিখন বলেন , ‘আমাদের এলাকার কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া ছাত্রদের সমন্বয়ে প্রতিষ্ঠিত ‘জাগো’ সকল কার্যক্রম আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। ’

‘শুধু ইচ্ছা ও মেধাশক্তি এবং একতাশক্তির সমন্বয়ে কোনো রাজনৈতিক সহযোগিতা ছাড়াও দেশ ও জাতির কল্যাণে অনেক ভালো কিছু করা যায়-এই সংগঠন তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন’-যোগ করেন এই জনপ্রতিনিধি