৮:৫০ এএম, ২৭ মার্চ ২০১৯, বুধবার | | ২০ রজব ১৪৪০




ঝালকাঠিতে কলেজ ছাত্রীকে খুন, প্রেমিকসহ অজ্ঞাতদের আসামী করে মামলা দায়ের

০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭:১১ পিএম | জাহিদ


মো.রাজু খান, ঝালকাঠি : ঝালকাঠি কলেজ ছাত্রী বেনজির জাহান মুক্তাকে নৃশংস ভাবে খুন করা হয়েছে।  মুক্তার বাড়িতে এখনও কান্নার রোল থামানো যাচ্ছে না। 

এদিকে মুক্তার শিক্ষক সহপাঠিরা এ ঘটনার দৃষ্টান্ত মূলক বিচার দাবী করেছে।  পুলিশ বলছে ঘটনার জড়িত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে খুব শীঘ্রই আইনের আওয়াতায় আনা হবে।  মুক্তার পরিবার সুত্রে জানা গেছে, মাত্র ক’দিন আগে স্নাতক প্রথম বর্ষের পরীক্ষার জন্য ফরম ফিলাপ করেছিল ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী বেনজির জাহান মুক্তা।  কিন্তু পরীক্ষা দেয়া আর হলনা তার। 

সোমবার দুপুরে কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পরে মোবাইল ফোনে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে বাড়ির কাছেই নলছিটি উপজেলার বড়ইকরণ গ্রামের নির্জন রাস্তায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয় তাকে।  বেশ কিছুদিন পূর্বে পটুয়াখালি জেলার কলাপড়া উপজেলার সোহাগ নামের এক যুবকের সাথে ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে মুক্তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।  কিন্তু সম্প্রতি ওই সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ায় প্রতিশোধ নিতে মুক্তাকে গলায় ধালালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায় ওই যুবক।  ঘটনার দিন কলেজে যাওয়ার পথেও মুক্তার মোবাইল ফোন কেড়ে নেয় ওই যুবক। 

এদিকে নৃশংস এ ঘটনায় মুক্তার বাড়িতে এখন কান্নার রোল থামেনি।  মুক্তার মা তাসলিমা বেগমসহ আত্মীয় স্বজনের কান্নায় আকাশ-বাতাশ ভাড়ি হয়ে আছে।  ওই বাড়িতে এখন কেবলই আর্তনাদ।  এদিকে মুক্তার সহপাঠি ও শিক্ষারও শোকাহত।  তারা এ ঘটনার দৃষ্টান্ত মূলক বিচার দাবী করেছেন।  মঙ্গলবার বিকেলে ময়নাতদন্ত শেষে নিহত বেনজির জাহান মুক্তাকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। 

নিহত মুক্তার বাবা অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক জাহাঙ্গির হোসেন কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, ‘যারা আমার মেয়েকে হত্যা করেছে আমি তাদের দৃষ্টান্ত মুলক বিচার চাই।  অপরাধী যেন খুব শীঘ্রই ধরা পড়ে।  নলছিটি থানার ওসি মো. শাখাওয়াত হোসেন জানান, সোহাগ নামের এক যুবকসহ অজ্ঞাতদের আসামী করে মঙ্গলবার নিহতের বাবা বাদী হয়ে এ ঘটনায় নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।  মামলার নথিভূক্ত করার প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে পুলিশ আরও জানায়, এ ঘটনায় অপরাধীকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনহত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 


keya