২:০৫ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০১৯, সোমবার | | ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




প্রেসক্লাবে হামলার ১৫ বছর

ঝালকাঠিতে সাংবাদিকদের ধিক্কার দিবস পালন

০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৭:০১ পিএম | জাহিদ


রাজু খান, ঝালকাঠি :  ৮ ডিসেম্বর ১৫ বছল আগে ২০০৩ সালের এই দিনে তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের বিএনপি যুবদল ও ছাত্রদলের স্থানীয় কিছু নেতা-কর্মীরা ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও ঝালকাঠি-বরিশালের সাংবাদিকদের মারধর করে এবং দশজন সাংবাদিকের নামে একটি মিথ্যা চাদাবাজি মামলা দায়ের করে। 

দিনটিকে ধিক্কার দিবস হিসেবে প্রতিবছর পালন করছে ঝালকাঠি প্রেসক্লাব।  দিনটি উপলক্ষে গতকাল দুপুর ১২ টায় ঝালকাঠি প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  প্রেসক্লাবের সহসভাপতি অ্যাড. আক্কাস সিকদারের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন সাবেক সভাপতি মুহাম্মদ আব্দুর রশীদ ও চিত্তরঞ্জন দত্ত, সাবেক সাধারণ সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন হিমু ও দুলাল সাহা, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মানিক রায়, সহসাধারণ সম্পাদক কেএম সবুজ, সদস্য অলোক সাহা, আল-আমিন তালুকদার ও শফিউল ইসলাম সৈকত। 

উল্লেখ্য, ২০০৩ সালে ক্ষমতাসীন বিএনপির এক নেতার বিরুদ্ধে বরিশালের একটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে তার ক্যাডাররা সাংবাদিক মো. হুমায়ূন কবিরকে ধাঁরালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।  এ ঘটনার প্রতিবাদে ওই বছরের ৮ ডিসেম্বর সাংবাদিকরা মৌনমিছিল ও জেলা প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি নিলে বিএনপির একটি গ্রুপ পুলিশের উপস্থিতিতে ঝালকাঠি প্রেসক্লাব এবং বরিশালের সাংবাদিকদের বহনকারী একটি মাইক্রোবাসে হামলা চালায় ও ভাংচুর করে। 

এ সময় ঝালকাঠি ও বরিশালের ৭ জন সাংবাদিক আহত হন।  হামলা চালানো হয় ঝালকাঠির স্থানীয় দৈনিক শতকন্ঠ কার্যালয়ে।