২:০৯ পিএম, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রোববার | | ১০ রবিউস সানি ১৪৪১




ট্রেনচালকদের উন্নত প্রশিক্ষণ প্রয়োজন : প্রধানমন্ত্রী

১২ নভেম্বর ২০১৯, ০৩:৫০ পিএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় রেল দুর্ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের দুর্ঘটনা এড়াতে প্রশিক্ষণ নেয়ার পাশাপাশি চালক ও কর্মকর্তাদের সতর্ক থাকতে হবে। 

মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বেপজার গভর্নিং বোর্ডের ৩৪তম সভায় একথা বলেন তিনি। 

গেল এক দশকের ভয়াবহতম রেল দুর্ঘটনা।  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কসবায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা আলোচনায় রপ্তানি প্রক্রিয়াজাতকরণ এলাকা বেপজার গভর্নিং বোর্ডের ৩৪তম সভায়ও।  নিজ কার্যালয়ে সভার শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভ্রমণের তুলনামূলক নিরাপদ ও স্বাচ্ছদ্য মাধ্যম রেলে এ ধরনের ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা বুলবুলের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারলাম কিন্তু দুর্ভাগ্য যে এখানে দুর্ঘটনা ঘটে গেল।  ঠিক জানি না কেন এ শীত মৌসুম আসলেই শুধু আমাদের দেশে নয়, সারাবিশ্বেই রেলের দুর্ঘটনা ঘটতে থাকে।  তবে রেলে যারা কাজ করে তাদের আরও সতর্ক করা উচিত।  

উদ্ধারে সব রকমের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন সরকার প্রধান। 

তিনি আরও বলেন, যারা মারা গেছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি এবং যারা আহত হয়েছেন তাদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।  আমরা যথাযথ ব্যবস্থার জন্য যা যা প্রয়োজন সেটা করছি। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার কারণে বিনিয়োগের উপযুক্ত পরিবেশ থাকায় দেশে শিল্পায়ন বাড়বে।  শিল্প বিনির্মাণে পরিবেশ রক্ষার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী।  নির্দেশ দেন খাদ্য উৎপাদনের বাড়ানোর। 

তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন সার বিশ্বের কাছে বিনিয়োগের সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্থান।  আর সেই লক্ষ সামনে রেখে  বেপজার সাথে সাথে বিভিন্ন অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছি।  আমাদের লক্ষ রাখতে হবে আমাদের খাদ্য উৎপাদন যেন হ্রাস না পায়।  জনসংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হবে।  

বোর্ড চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ সভায় উপস্থিত ছিলেন আটটি ইপিজেডের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিবরা।