১০:১৪ এএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার | | ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

টিলারসনই থাকছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বে: হোয়াইট হাউস

০২ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৭:০২ এএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনকে বহিষ্কারের পরিকল্পনা করা হচ্ছে এখন খবর  খবর উড়িয়ে দিয়ে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডার্স।  গত কয়েকমাস ধরে টিলারসনকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার গুজব ছড়িয়ে পড়ে কিন্তু গতকাল অনেকগুলো আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে।   বিবিসির সংবাদ। 

স্যান্ডার্স বলেন,  এই শীর্ষ কূটনীতিকই মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্ব দিয়ে যাবেন।  পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেন খবরটি সঠিক নয় বলে জানান, এর আগেও বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম তার স্থলে সিআইএ এর  প্রধান মাইক পম্পেওকে বসানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে খবর বের হয়, কিন্তু আদতে খবরটি সঠিক নয়। 

সরকারী সূত্রের বরাতে নিউইয়র্ক টাইমস ও ভ্যানিটি ফেয়ার ম্যাগাজিন প্রথম এ খবরটি ছাপে।  তাতে বলা হয় উত্তর কোরিয়া সহ বিভিন্ন ইস্যুতে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও রেক্স টিলারসনের মধ্যে মতানৈক্য দেখা দিয়েছে।  যার কারণে টিলারসনকে আর দায়িত্ব রাখতে চান না ট্রাম্প।  

এ ছাড়া  টিলারসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে, অক্টোবর মাসে গোপনে তিনি ট্রাম্পকে 'মুর্খ' বলেছেন।  ধারণা করা হচ্ছে, এতে ক্ষুব্ধ হয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বহিষ্কার করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। 

এ্যাসোসিয়েট প্রেসও (এপি) ও রয়টার্সও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হোয়াইট হাউসের দুই কর্মকর্তার বক্তব্য প্রকাশ করে।  তাতেও বলা হয়, টিলারসনের পরিবর্তে দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে সিআইএ প্রধানকে।  

স্যান্ডার্স বলেন, এখনো পর্যন্ত টিলারসন ট্র্যাম্পের সাথেই আছেন।  যেহেতু কোন ধরণের ব্যক্তিগত ঘোষণা আসেনি।  ট্রাম্প প্রশাসনের প্রথম বছরের অসাধারণ সাফল্যের দিকেই মন্ত্রীসভার মনোযোগ। 

এ দিকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হিদার নুয়ার্ট স্বীকার করেন যে টিলারসন ও ট্রাম্পের মধ্যে নীতিগত বিষয়ে নানা মতপার্থক্য রয়েছে।  তবে বহিষ্কারের গুজবটি সত্য নয়।