৯:১১ এএম, ২২ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




টেস্টে আজকাল আর লড়তে পারে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

২০ জুন ২০১৭, ০৪:১৩ এএম | মাসুম


এসএনএন২৪.কম ডেস্ক : একদা ক্রিকেট মহিরুহ ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটের জন্য বর্তমান দিনগুলো বড় লজ্জার।  টেস্টে আজকাল আর লড়তে পারে না।  ওয়ানডেতে এখন বিশ্বের ৯ নম্বর দল।  অথচ দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।  মাত্র শেষ হওয়া ইংল্যান্ডের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি।  তাই খেলা হয়নি।  তারা ২০ ওভারের ক্রিকেটে অবশ্য দাপুটে।  এখানে তারাই একমাত্র দুবারের চ্যাম্পিয়ন।  বর্তমান শিরোপাধারীও বটে।  কিন্তু ভারত থেকে গেলোবার তাদের শিরোপা জেতানো অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি এই টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভবিষ্যৎ অন্ধকার দেখছেন!

স্যামিকে বিশ্বকাপ জেতানোর পরই ছুড়ে ফেলেছে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট বোর্ড।  এরপর আর জাতীয় দলে সুযোগ পাননি।  সুযোগ পাবেন এমন ইঙ্গিতও নেই।  ওই চ্যাম্পিয়ন দলের আরো কয়েকজন উপেক্ষিত।  ওয়ানডের জাতীয় দলে তো ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার আইনের মারপ্যাচে পড়ে অনেকে যোগ্যতাই অর্জন করতে পারছেন না।  কারণ, বিদেশি টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে দাপিয়ে খেলেন তারা।  ওই আইনটা বিতর্কিত।  কিন্তু ক্যারিবিয়ান বোর্ড অনড়।  খেলোয়াড়রাও তাদের অবস্থান থেকে সরবেন না।  আর এসব টানাহেঁচড়ায় জের বার হচ্ছে একদা প্রবল প্রতিপত্তিময় দ্বীপবাসীদের ক্রিকেটের।  স্যামি স্পষ্ট বলে দিচ্ছে, বড় বড় নামগুলোর খুব শিগগিরই ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টুয়েন্টি দলে খেলার সম্ভাবনাও দেখছেন না। 

'বর্তমান প্রশাসনের কারণে আমার মনে হয় অমনটা হবে না। ' বিবিসি রেডিওকে সোমবার স্যামি বলেছেন, 'যখন একজন খেলোয়াড় একটা লিগে খেলে তার পরিবারে স্বচ্ছলতা আনতে সক্ষম হয় তখন সেখানে খেলতে নিষেধ করা যায় না। ' সেটা উচিতও না বলে মানেন ৩৩ বছরের স্যামি।  ক্যারিবিয়ানে যার জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া। 

ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার শর্ত পূরণ করতে পারেন না বলে ক্রিস গেইলের মতো বিধ্বংসী ব্যাটসম্যানের টেস্ট এবং ওয়ানডে দলে সুযোগ হচ্ছে না।  মারলন স্যামুয়েলসেরও ওই অবস্থা।  ক্যারিবিয়ান বিভিন্ন দেশের প্রায় সব ক্রিকেটার ঘরোয়া টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে খেলেন।  কিন্তু তাদের অনেকে বিশেষ করে বড় তারকারা ওয়ানডে ও ফার্স্ট ক্লাসে খেলতে পারেন না।  কারণ, বিদেশি লিগে খেলেন তখন।  টাকাকড়ির হিসেবে যেটি অনেক বেশি লাভজনক ও লোভনীয়। 

স্যামির কথা হলো, যেভাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেট চলছে তাতে উন্নতির কোনো আশা নেই।  তার শঙ্কা, 'আমাদের হয়তো অবনমনের কারণে আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডের সাথে খেলতে হতে পারে। ' একদা টেস্ট, ওয়ানডে দুনিয়া শাসন করা উইন্ডিজের জন্য এরচেয়ে দুঃখজনক কিছু হতে পারে না তার কাছে।  এসবের ধারাবাহিকতা ও কুপ্রভাব টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটেও পড়তে পারে বলে ভয় পাচ্ছেন স্যামি।  এই কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টুয়েন্টি ভবিষ্যতও রীতিমতো আঁধার দেখছেন।