৪:৩২ পিএম, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রোববার | | ৭ রবিউস সানি ১৪৪০




ঢাকায় শুরু হচ্ছে তিন দিন ব্যাপী ল্যাপটপ মেলা

০১ আগস্ট ২০১৮, ০৮:৫০ এএম | মাসুম


এসএনএন২৪.কম : আগামী ২ আগস্ট থেকে রাজধানী ঢাকায় শুরু হচ্ছে ল্যাপটপ মেলায়।  ‘এফোরটেক সামার ল্যাপটপ ফেয়ার ২০১৮’ নামে এই মেলা বসবে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি)।  চলবে তিন দিন।  এক্সপো মেকারের আয়োজনে এটি দেশের ২০তম ল্যাপটপ প্রদর্শনী। 

এবারের আয়োজনে ১টি টাইটেল স্পন্সর প্যাভিলিয়ন, ৫টি স্পন্সর প্যাভিলিয়ন, ১৪টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ২৭ স্টলে দেশ-বিদেশের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সর্বশেষ প্রযুক্তির পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করবে। 

মেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক এফোরটেক।  সহপৃষ্ঠপোষক হিসেবে রয়েছে এসার, আসুস, ডেল, এইচপি, লেনোভো।  পার্টনার হিসেবে রয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিকমবিষয়ক বিশেষায়িত নিউজ পোর্টাল টেকশহরডটকম এবং এডুমেকার।  এ ছাড়া মেলায় মিডিয়া বুথও থাকবে।  মেলা উপলক্ষে গত রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর কাওরান বাজারের বেস্ট ওয়েস্টার্ন লা ভিনচি হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংশ্লিষ্টরা এসব কথা জানান। 

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন গ্লোবাল ব্র্যান্ড প্রাইভেট লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল ফাত্তাহ, এইচপি বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার ইমরুল হোসেইন ভূঁইয়া, ডেল বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার আতিকুর রহমান, আসুস বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার মো: আল ফুয়াদ, এসার বাংলাদেশের চ্যানেল সেলস কনসালট্যান্ট সাকিব হাসান ও এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান। 

মুহম্মদ খান জানান, আগের সব মেলাতে শিক্ষার্থী, তরুণ প্রজš§সহ সবার অংশগ্রহণ ছিল প্রত্যাশার চেয়েও বেশি।  আশা করছি, এবারের মেলা আগের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে।  ল্যাপটপের পাশাপাশি মেলায় সর্বশেষ প্রযুক্তি ও ডিজাইনের ডিভাইস নিয়ে হাজির হবে অংশগ্রহনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।  জনপ্রিয় ব্র্যান্ডগুলোর সর্বশেষ মডেলের ল্যাপটপের পাশাপাশি আনুষঙ্গিক যন্ত্রাংশও পাওয়া যাবে।  সব ধরনের পণ্যেই পাওয়া যাবে বিশেষ ছাড় এবং সাথে উপহার। 

প্রতিবারের মতো এবারো মেলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে (facebook.com/laptopfair.bd) কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।  কুইজে অংশ নিয়ে আকর্ষণীয় পুরস্কার জিতে নেয়ার সুযোগ রয়েছে। 

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে।  মেলায় প্রবেশমূল্য ৩০ টাকা।  তবে স্কুলের শিক্ষার্থীরা ইউনিফর্ম পরা অবস্থায় কিংবা পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবে।  প্রতিবন্ধীরাও বিনামূল্যে প্রবেশের এই সুযোগ পাবে। 



keya