৯:৩৩ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১৪ মুহররম ১৪৪০


দিয়াশলাইয়ের কাটির আগুনে পুড়ে ছাঁই বসত ঘর

১০ মার্চ ২০১৮, ০৬:০০ পিএম | সাদি


নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান) প্রতিনিধি : বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধমে এক ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠীর বসত ঘর পুঁড়ে ছাঁই হয়েছে।  শনিবার সকাল ১০ টার দিকে ইউনিয়নের রেজু বরইতলী পাড়ায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।  তবে কোন প্রানহানীর ঘটনা ঘটেনি। 
খবর পেয়ে ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ওসি (তদন্ত) ইমন কান্তি চৌধুরী সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা আগুনে পুড়ে যাওয়া বসত ঘর দেখতে ঘটনাস্থলে যান। 

ক্ষতিগ্রস্থ কেমং তংচঞ্চইগ্যা জানান, বাড়িতে রক্ষিত ঝাড়– ফুলের স্তুপে তার ছোট্ট শিশুটি খেলার ছলে দিয়াশলাইয়ের কাটি থেকে আগুন ছুড়ে মারে।  উক্ত আগুন ছড়িয়ে পড়লে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি।  এতে বাড়িতে রক্ষিত মুল্যবান মালামাল, প্রয়োজনীয় গৃহস্থালী সামগ্রীসহ বাড়িটি সম্পুর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।  ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ২ লাখ টাকার অধিক হবে বলে জানান তিনি। 

ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ওসি (তদন্ত) ইমন কান্তি চৌধুরী বসত ঘর পুড়ে যাওয়ার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, দিয়াশলাইয়ের কাটি থেকেই আগুনের সুত্রপাত।  মূহুর্তেই কেমং তংঞ্চইগ্যার বসত বাড়ীটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। 

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীর আজিজ জানান, কেমং তংচঞ্চইগ্যা ঘুমধুম ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড রেজু বরইতলীর এলাকার অংচাই তংঞ্চইগ্যার ছেলে।  বর্তমানে কেমং তংঞ্চইগ্যা পরিবার-পরিজন নিয়ে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর দিন পার করছে। 


keya