১২:৫৫ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯, রোববার | | ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




ধুনট পৌরসভায় নাগরিক দুর্ভোগ চরমে

১৬ জুলাই ২০১৯, ০৫:৩০ পিএম | নকিব


রফিকুল আলম, ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি:রাষ্ট্রীয় কোষাগার হতে শতভাগ বেতন ভাতার দাবীতে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্দোলনের কারনে বগুড়ার ধুনট পৌরসভায় নাগরিক সেবা বন্ধ রয়েছে। 

এতে প্রয়োজনীয় নাগরিক সেবা নিতে আসা সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছে।  

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৌরসভা থেকে শহর কেন্দ্রিক অবকাঠামো উন্নয়ন, পরিচ্ছন্নতা, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, পয়ঃনিষ্কাশন, সড়ক আলোকিত করা, ওয়ারিশান সনদ, নাগরিক সনদ, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন সনদ, পরিবেশ ছাড়পত্র সনদসহ অন্তত অর্ধশতাধিক ধরনের সেবা নাগরিকদের দিয়ে থাকে। 

বর্তমানে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা আন্দোলনে যাওয়ায় পৌরসভার সেবাপ্রত্যাশী লোকজন সেবা নিতে এসে অফিসকক্ষে তালা ঝুলানো দেখে ফিরে যাচ্ছে।  এছাড়াও কয়েকদিনের প্রবল বৃষ্টির কারনে ড্রেনগুলোতে ময়লা জমে রাস্তার পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে।  পরিচ্ছন্ন কর্মীর অভাবে ময়লা আবর্জনা পরিস্কার না করায় পৌরসভার বিভিন্ন এলাকার রাস্তা দিয়ে চলাচল বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।  পথচারীদের নাক মুখ চেপে দুর্গন্ধের মধ্যদিয়েই চলাচল করতে হচ্ছে।  

কর্মচারীর অভাবে সন্ধ্যা হলে এখন শহরের রাস্তায় আলো থাকে না।  ফলে পৌর এলাকায় সন্ধ্যার পর ভ‚তুরে অবস্থা সৃষ্টি হয়।  অপরিস্কার রাস্তায় অন্ধকারে শঙ্কা নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে পথচারীদের।  

এছাড়াও চাকুরী আবেদনকারীদের নাগরিক সনদ, জন্মনিবন্ধন সনদ, ব্যবসায়ীদের ট্রেড লাইসেন্স, জায়গা জমি ওয়ারিশান ও পারিবারিক সনদ, নাগরিক সনদ, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন সনদ, বিভিন্ন ধরণের প্রত্যয়ন পত্র না পাওয়ায় সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তির মধ্য পড়েছে। 

ধুনট পৌরসভায় জন্মনিবন্ধন সনদ নিতে আসা ফরিদ উদ্দিন জানায়, আগামী পরশু ঢাকায় যাবো চাকরির জন্য।  চাকরির জন্য জন্মনিবন্ধন সার্টিফিকেট অবশ্যই লাগবে।  পৌরসভায় তালা ঝোলানো, কার্যালয়ে সার্টিফিকেট দেয়ার মতো কেউ নাই।  জন্ম নিবন্ধন ছাড়া আমার চাকরির কি হবে আল্লাহ জানে।  

ধুনট বাজারের ব্যবসায়ী বিশা মিয়া জানান, গত কয়েকদিন ধরে বাজারের ময়লা আবর্জনা পরিস্কার করা হচ্ছে না।  যার ফলে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়েছে।  আমরা সারাদিন দুর্গন্ধ সাথে নিয়েই কষ্ট করে দোকানে এভাবেই বসে থাকি।  বাজার অপরিচ্ছন্ন থাকায় ক্রেতা সমাগম আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে।  

ধুনট পৌরসভার সচিব শাহিনূর ইসলাম বলেন, রাষ্ট্রীয় কোষাগার হতে শতভাগ বেতন ভাতার দাবীতে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্দোলনের অংশ হিসেবে দেশের অন্যান্য পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ন্যায় আমরাও ঢাকায় অবস্থান করছি।  দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথ থেকে ঘরে ফিরবো না।  এক্ষেত্রে নাগরিক সেবা ব্যাহত হলেও আমাদের করার কিছু নেই।