৩:১১ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০১৮, শনিবার | | ৯ সফর ১৪৪০


নিখোঁজের চার দিন পর রক্তি নদীতে ভেসে উঠলে নৌ শ্রমিকের লাশ

০৬ জুন ২০১৮, ১০:২৩ এএম | জাহিদ


হাবিব সরোয়ার আজাদ, সিলেট প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের রক্তি নদীতে দু’ বাল্কহেড (ষ্টিল বডি বড় নৌকা)’র ধাক্কায় নদীতে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার চারদিন পর নৌ শ্রমিক আবদুস সাত্তার (৩৮)’র লাশ নদীতেই ভেসে উঠলো।  নিহত শ্রমিক কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর উপজেলার কুকরাই গ্রামের আবদুল কদ্দুছের ছেলে। 

বুধবার সকালে জেলা সদর হাসপাতাল মর্গ থেকে নিহত শ্রমিকের লাশ থানা পুলিশ তার স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করেছে। 

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধায় বিশ্বম্ভপুরের ফতেহপুর ইউনিয়নের সংগ্রামপুর গ্রামের অদুরে রক্তি নদীতে ভাসমান অবস্থায় ওই শ্রমিকের লাশ উদ্ধারের পর রাতে জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। 

জানা গেছে, কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর থেকে ছেড়ে আসা তাহিরপুরের ফাজিলপুর থেকে বালু পরিবহনের জন্য বাল্কহেড নৌকাটি বিশ্বম্ভরপুরের সংগ্রামপুর গ্রাম সংলগ্ন রক্তি নদী শনিবার সন্ধায় অতিক্রম করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি বাল্কহেডের ধাক্কায় নৌকা থেকে পড়ে নিখোঁজ হন  নৌ শ্রমিক আবদুস সাক্তার। 

নিখোঁজের পর সিলেট থেকে আসা ডুবুরি দলের সদস্যরা স্থানীয় এলাকাবাসীর সহায়তায় রোববার সন্ধা পর্য্যন্ত সন্ধান কাজ চালিয়েও ওই শ্রমিকের কোন সন্ধান না পেয়ে ডুবুরি দলের সদস্যরা ওই রাতেই সিলেট ফিরে গেছেন। 

বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি মোল্লা মনির হোসেন বুধবার  জানান, নৌ দূর্ঘটনায় নিহত  শ্রমিকের ব্যাপারে থানায় নিয়মিত মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। 


keya