১১:১২ পিএম, ২২ জুন ২০১৮, শুক্রবার | | ৮ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

নাজিরপুরে ইউএনও’র স্বাক্ষর জাল করে শিক্ষক নিয়োগে মাদরাসার সুপার

১০ জুন ২০১৮, ০৫:৫০ পিএম | মুন্না


মো.দেলোয়ার হোসাইন, পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের নাজিরপুরে ইউএনও’র স্বাক্ষর জাল করে শিক্ষক নিয়োগের অভিযোগে এক  মাদরাসা সুপারকে   জেল হাজতে  প্রেরণ করেছে আদালত। 

জানা গেছে, উপজেলার শেখমাটিয়া দারুচ্ছুন্নাত দাখিল  মাদরাসার সুপার মো. আ. মান্নান গত ২০০৫ সালের ১১ ফেব্রুয়ারী ওই মাদরাসার সহকারি মৌলাভী পদে বাগেরহাট  জেলার চিতলমারী উপজেলার বটতলা গ্রামের আ.ওয়াহেদ খানের পুত্র  মো. ইলিয়াছ  হোসেনকে গোপনভাবে  নিয়োগ  দেন।  কিন্তু ওই  সময়  একই পদে সেখানে কর্তব্যরত শিক্ষক ছিলেন উপজেলার  শেখমাটিয়া ইউনিয়নের রামভদ্রা   গ্রামের মৃত  মৌ. মো. এনছান আলীর পুত্র  মো. আ: হামিদ  শেখ। 

হামিদ  শেখ জানান, ওই সময় তিনি  সেখানে   নিয়মিত শিক্ষক হিসাবে  শিক্ষক প্রতিনিধি’র দায়িত্বও পালন করছিলেন।  কিন্তু   সুপার আ. মান্নান  তার (হামিদ) নিয়োগ গোপন রেখে তখন ওই মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি’র দায়িত্বে থাকা উপজেলা  নির্বাহী কর্মকর্তার স্বাক্ষর জাল করে  ইলিয়াস  হোসেনের  নিয়োগ প্রদান করেন। 

পরে  তার (ইলিয়াছ) বেতন-ভাতার জন্য  মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর ওই নিয়োগ সংক্রান্ত কাগজ পত্র  প্রেরন করেন।  শিক্ষা অধিদপ্তর   ওই বছরের ডিসেম্বরের এমপিওতে ওই জাল স্বাক্ষরের নিয়োগকৃত শিক্ষকের  বেতন ভাতা প্রদান করেন।  বিষয়টি তখন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির দায়িত্বে থাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  মো. রফিকুল ইসলামের দৃষ্টিতে  গেলে তিনি ওই শিক্ষকের  বেতন-ভাতা বন্ধ রাখেন।   বিষয়টি তিনি (ইউএনও) উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে তদন্ত প্রতিবেদনের দায়িত্ব  দেন।  এর পর গত ২০০৬ সালের ২ মে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার তদন্ত প্রতিবেদনের   প্রেরিক্ষেতে ওই সুপারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। 

একই সময়  ওই শিক্ষকের  (ইলিয়াছ)  ভুয়া এমপি বাতিলের জন্য মাউশি’র কাছে ইউএনও প্রতিবেদন দিলে তার ভুয়া এমপিও বাতিল হয়।   এ ঘটনার পর সুপার মান্নান পুনঃরায় গোপনে ওই শিক্ষকের  বাতিলকৃত এমপিও গত ২০১৫ সালের জুলাই মাসে বহাল করেন।   এর প্রেক্ষিতে ভুক্তভোগী শিক্ষক আ: হামিদ মাদরাসা সুপার আ. মান্নান ও ভুয়া নিয়োগকৃত শিক্ষক ইলিয়াসের  বিরুদ্ধে   পিরোজপুর জেলা  স্পোশাল ট্রাইবুনালে মামলা দায়ের করেন। 

এ মামলায় রোববার জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট প্রবীর কুমারের আদালতে ওই সুপার জামিন আবেদন করলে আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।