৯:১৪ এএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার | | ৪ রজব ১৪৪১




নাটোরের বাগাতিপাড়ায় মধ্যযুগীয় কায়দায় চুরির শাস্তি। ৯৯৯ ফোনে উদ্ধার

২১ জানুয়ারী ২০২০, ১০:০০ এএম | নকিব


মোঃ রাশেদুল ইসলাম, নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বাগাতিপাড়ায়  এক যুবককে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্দেযাতন করা হয়েছে   
চার্জার চালিত ভ্যান চুরির অভিযোগে । 

সেই নির্যাতনের ছবি ফেসবুকের মাধ্যমে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।  সোমবার সকালে বাগাতিপাড়া উপজেলার দয়ারামপুর বাজার এলাকায় মিশ্রিপাড়ায় এ নির্যাতনের ঘটনা ঘটে।  এমন সময় ঘটনাস্থল থেকে   ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।  পুলিশ তৎক্ষনাৎ ওই যুবককে উদ্ধার করে। 

এলাকাবাসি ও পুলিশ জানান, সোমবার সকালে দয়ারামপুর এলাকার মিশ্রিপাড়া গ্রামের মাহাতাব সরদার মারা যায়, পরেতার জানাজা নামাজের স্থান থেকে একই এলাকার আলমগীর হোসেনের চার্জার চালিত ভ্যানগাড়িটি মনিরুল ইসলাম নামের এক ছিসকে চোর চুরি করে পালানোর সময় স্থানীয়রা দেখতে পান।  এসময় ভ্যানগাড়ি চোর কে ধরে ফেলে।  বাগাতিপাড়া উপজেলার মাছিমপুর এলাকার আব্দুল গাফফারের ছেলে মনিরুল ইসলাম।  দয়ারামপুর ইউনিয়ন পরিষদের নতুন ভবনের সামনে লাম্পপোষ্টের খুঁটির সাথে মনিরুলকে হাত পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করা হয়।  আর সেই ছবি ফেসবুকের মাধ্যমে দ্রুত চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে ।  এরই মধ্যে ৯৯৯ এ খবর পেয়ে পুলিশ ওই যুবককে উদ্ধার করে। 
 
বাগাতিপাড়া মডেল থানার এসআই তারেকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মনিরুল কে দয়ারামপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্মানাধীন ভবনের কক্ষ থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। 
দয়ারামপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুর রহমান মিঠু  জানান, মনিরুল কে চার্জর ভ্যান চুরি দায়ে চর থাপ্পড় মেরেছে, মধ্যযোগিয় কায়দায় মারধরের ঘটনায় জানা নেই।  চোরকে হয়তো বিদ্যুৎ এর খুঁটির সাথে বেঁধে রাখতে পারে নির্যাতন করেনি। 

বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি আব্দুল মতিন জানান, আলমগীর হোসেনের ভ্যান চুরির সময় জনগন মনিরুলকে হাতে ধরে ৯৯৯ ফোন দিিয়ে পুুলিশের হাতে তুলেদেয়।  ভ্যানের মালিকের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে একটি চুরির মামলার করা হয়েছে ।