৯:০৪ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার | | ৮ মুহররম ১৪৪০


নতুন সৌরজগতের সন্ধান

১৬ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৬:৩৭ পিএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : মহাকাশে নতুন সৌরজগতের সন্ধান পেয়েছেন মার্কিন মহাকাশ গবেষণা নাসা।  অনুসন্ধানকৃত এই সৌরজগতে রয়েছে আটটি গ্রহ। 

কেপলার স্পেস টেলিস্কোপ থেকে প্রতি মুহূর্তেই অসংখ্য ডেটা জমা হচ্ছে বিজ্ঞানীদের হাতে।  গুগলের মেশিন লার্নিং টেকনোলজি ব্যবহার করে প্রাপত ডেটা থেকে এই নক্ষত্রমণ্ডলের হদিস মিলেছে। 

বলা যায়, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিসিয়াল ইন্টালেজিন্সে ব্যবহার করেই এই সাফল্য মিলেছে।  যে নক্ষত্রকে কেন্দ্র করছে ওই আটটি গ্রহ, সেটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘কেপলার ৯০’।  আকারে প্রায় সূর্যের কাছাকাছি।  পৃথিবী থেকে প্রায় ২৫৪৫ আলোকবর্ষ দূরে তার অবস্থান। 

এই নক্ষত্রকে কেন্দ্র করেই পরিভ্রমণ করছে আটটি গ্রহ।  কতটা ছোট এই নক্ষত্রের সংসার? একটা উদাহরণে তা স্পষ্ট হবে।  সূর্য থেকে পৃথিবীর দূরত্ব ঠিক যতটা, নক্ষত্রটি থেকে তার সিস্টেমের দূরতম গ্রহের দূরত্বও ঠিক ততখানি।  

এই দূরত্বের মধ্যেই পাক খাচ্ছে আরও সাতটি গ্রহ।  ফলত গ্রহগুলির উষ্ণতা যে বেশি হবে তা সহজেই অনুমেয়।  সে কারণে সেখানে জীবনের বিকাশ হওয়া সম্ভব নয় বলেই মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। 

এই সংসারে সদ্য যে গ্রহটির খোঁজ মিলেছে তার নাম দেওযা হয়েছে ‘কেপলার ৯০ আই’।  পৃথিবীর মতোই পাথুরে তার উপরিভাগ।  তবে তাপমাত্রা অত্যন্ত বেশি।  বিজ্ঞানীরা অঙ্ক কষে দেখেছেন তা প্রায় ৪২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  অর্থাৎ সূর্যের নিকটতম গ্রহ বুধের উষ্ণতার কাছাকাছি।  আর গ্রহটি তার নক্ষত্রকে পূর্ণ পরিভ্রমণ করছে পৃথিবীর হিসেবে মোটামুটি ১৪ দিনে।  অর্থাৎ আমাদের এখানে যা দুই সপ্তাহ, ওই গ্রহের সেই সময়েই এক বছর পূর্ণ হচ্ছে।  বলা বাহুল্য সে অভিজ্ঞতার সাক্ষী থাকতে এখনও গ্রহটিতে কোনও বাসিন্দা নেই।  নয়া নক্ষত্রমণ্ডল আবিষ্কার হওয়ার পর থেকেই বিজ্ঞানীমহলে খুশির হাওয়া।  এতদিনে দোসর মিলেছে সৌরমণ্ডলের।