২:৫২ পিএম, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার | | ১৪ শাওয়াল ১৪৪০




নেত্রকোনায় নবজাতকের সন্ধ্যান মিলেছে

১৯ মে ২০১৯, ০৮:৩৬ পিএম | জাহিদ


জাহাঙ্গীর আলম, নেত্রকোণা : নেত্রকোনায় এক ছেলে নবজাতককের সন্ধ্যান মিলেছে।  নবজাতকের বয়স ৭ দিন।  তার নাম রাখা হয়েছে হানিফ।  এ ব্যাপারে থানায় সাধারন ডায়েরী করার নির্দেশ প্রদান করেছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, হানিফ নামে ৭ দিন বয়সের এই ছেলে নবজাতককে পৌর সদরের জয়নগর এলাকার আমেনা আক্তার নামে একজনের বাসায় রেখে চলে যায় এক বাক প্রতিবন্ধি নারী।  ঘটনাটি ঘটেছে গেল সোমবার (১৩ মে) দুপুরে।  পরে আজ রবিবার দুপুরে আমনা আক্তার শিশুটিকে থানায় নিয়ে যায়।  পুলিশ নবজাতককে সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট প্রেরন করেন।  এ ব্যাপারে নির্বাহী কর্মকর্তা থানায় জিডি করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন। 

এদিকে আমেনা আক্তার জানায়, “গেল সোমবার দুপুরে এক বাক প্রতিবন্ধি (বোবা) আনুমানিক ২৭ বছর বয়সের এক নারী নবজাতককে নিয়ে শহরের জয়নগর এলাকায় আমার বাসায় আসে।  এসময় তার প্রতি সহানুভূতি হয়ে তাকে বাসায় থাকতে দেই।  এই সুযোগে আমার ঘরে নবজাতক শিশুটিকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় বাক প্রতিবন্ধি নারী।  সকালে তাকে আর দেখতে পাওয়া যায়নি। 

পরে নবজাতককে হাসপাতালে ভর্তি করে আমি চলে আসি।  হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আবার শিশুটিকে নিয়ে আসি।  এ ঘটনা নিয়ে আমার সাথে আমার স্বামীর মাঝে পারিবারিক কলহ দেখা দেয়।  পরে নিরুপায় হয়ে নবজাতককে নিয়ে আজ রবিবার নেত্রকোনা মডেল থানায় নিয়ে আসি এবং নির্বাহী কর্মকর্তা নিকট যাওয়ার জন্য নির্দেন দেয় পুলিশ।  এদিকে উক্ত নারী বাক প্রতিবন্ধি থাকায় তার কোন ঠিকানা জানা যায়নি’। 

এদিকে নেত্রকোনা সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সুমনা আল মজিদ জানান, ‘রবিবার বিকেলে নবজাকতকে আমার কাছে নিয়ে আসলে থানায় সাধারন ডায়েরী করার জন্য নির্দেশ প্রদান করি।  জিডির পর তার সুস্থতার জন্য আজ হাসপাতালে রাখা হবে।  পরদিন তাকে ঢাকার আজিমপুরে ছোটমনি নিবাসে প্রেরন করা হবে’।  তবে বিষয়টি রহস্যজনক বলে জানান তিনি। 

এ বিষয়ে নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ তাজুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে মডেল থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে।