৯:০৯ এএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১২ সফর ১৪৪০


নান্দাইলে যাত্রী ছাউনি ও গনশৌচাগারের অভাবে যাত্রীদের দূর্ভোগ

০৬ জানুয়ারী ২০১৮, ০৩:১৯ পিএম | জাহিদ


মোঃ শাহজাহান ফকির, নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : নান্দাইল উপজেলায় গুরুত্বপূর্ণ বাসস্ট্যান্ডে যাত্রী ছাউনি ও গনশৌচাগার না থাকায় যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। 

যাত্রীদের বিভিন্ন দোকান-পাটে ও বড় কোন বৃক্ষের ছাঁয়া তলে বসে বাসের জন্য ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে দেখা যাচ্ছে।  যাত্রী ছাইনি ছাড়াও এখানে কোন গনশৌচাগার নেই। 

উপজেলার যে স্থানে যাত্রী ছাউনি নেই তার মধ্যে খুররম খান চৌধুরী ডিগ্রী কলেজ, ঝালুয়া বাজার, নান্দাইল পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড, নান্দাইল চৌরাস্তা, তারেরঘাট সেতু, জামতলা বাজার উল্লেখযোগ্য।  মুশুলী স্কুল এন্ড কলেজ গেইটে একটি যাত্রী ছাউনি থাকলেও তা দীর্ঘ দিন ধরে অকেজো হয়ে পড়ে থাকায় ডিস ব্যবসায়িরা ঘরটি তাদের দখলে নিয়ে ব্যবহার করছে। 

শিক্ষা, সংস্কৃতি, ক্রীড়া, রাজনৈতিক ও ব্যবসা-বাণিজ্য সমাদৃত এই উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থাও অত্যন্ত ভালো।  উপজেলার বিভিন্ন বাসষ্ট্যান্ডের মধ্যে নান্দাইল চৌরাস্তা উল্লেখযোগ্য। 

এই বাসস্ট্যান্ড দিয়ে প্রতিদিন ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত হাজার হাজার দূরপাল্লার যাত্রী রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগীয় শহরসহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে। 

এছাড়া গণশৌচাগার না থাকায় চৌরাস্তার গৌলচত্বরের পরিবেশও নষ্ট হচ্ছে।  এতে যাত্রীদের পাশাপাশি পরিবহন শ্রমিকদেরও চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়।  ফলে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত বাস যাত্রীরা রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে খোলা আকাশের নীচে দাড়িয়ে সীমাহীন দূর্ভোগ পোহাচ্ছে। 

বাসস্ট্যান্ডে যাত্রীদের জন্য নির্দিষ্ট কোন স্থান ও ছাউনি না থাকায় দুরের যাত্রীরা আশ্রয়ের জন্য ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ারও অভিযোগ উঠেছে।  এক্ষেত্রে মহিলা যাত্রীদের দুর্ভোগ অবর্ণনীয়। 

এই ব্যপারে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চৌধুরী স্বপন বলেন, বাসস্ট্যান্ড গুলোতে যাত্রীদের জন্য কোন ছাউনি না থাকায় বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টির পানিতে ভিজে গন্তব্য স্থানে পৌঁছতে হয়।  আবার দূরের কোন যাত্রীর জন্য নির্দিষ্ট স্থান না থাকায় নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য বাসস্ট্যান্ডের আশপাশে দোকান ঘরের ধারে ধারে ঘুরতে হয়। 

তাই উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ বাসস্ট্যান্ডে যাত্রীদের জন্য ছাউনি ও গণশৌচাগার তৈরির ব্যপারে সাংসদ আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিনের সাথে কথা বলবো।  সাংসদ বিষয়টি জাতীয় সংসদে উত্থাপন করে সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করবেন বলে তিনি আশা করেন। 

উপজেলার চৌরাস্তা বাসস্ট্যান্ড সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যাত্রী ছাউনি নির্মাণের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসন সহ সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাধারণ যাত্রীগণ।