২:৪২ পিএম, ২০ আগস্ট ২০১৮, সোমবার | | ৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯


নান্দাইলে সংবাদ প্রকাশে বিধবা মহিলাকে মারধর

০৯ জুন ২০১৮, ০৩:০৩ পিএম | সাদি


মো. শাহজাহান ফকির, নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার রাজগাতী গ্রামের মৃত ফিরোজ আলীর স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৪৫)কে মারধর সহ বাড়ি-ঘর ভাংচুরের ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের ও পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর কতিপয় দাঙ্গাবাজরা ক্ষিপ্ত হয়ে পুনরায় ওই নারীকে মারধর করেছে । 

জানাযায়, একই গ্রামের মৃত আব্দুল হামিদ মিয়ার পুত্র সিরাজ মিয়া, সিরাজ মিয়ার পুত্র হান্নান, আলমগীর হোসেন, সুমন মিয়া, জাহাঙ্গীর, আম্বিায়া খাতুন স্বামী সিরাজ মিয়া গংদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে।  বিবাদীগণ উক্ত বিধবা মহিলার ভাসুর, ভাতিজা ও ভাবী।  গত সোমবার (৪ জুন) রাতে বিবাদীগণ উপচে পড়ে বিধবা মহিলা আনোয়ারার সাথে ঝগড়া করে। 

ঝগড়ার এক পর্যায়ে আনোয়ারা আক্তারকে মারধর করে।  এ ঘটনায় ৫ই জুন আনোয়ারা বেগম নান্দাইল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।  পরে বিধবা মহিলা’কে মারধরের ঘটনায় পত্র-পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হলে শুক্রবার (৮ই জুন) দুপুরে কতিপয় দাঙ্গাবাজ সিরাজ মিয়া গংরা ক্ষিপ্ত হয়ে পুনরায় আনোয়ারা বেগমকে মারধর করে ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যায়। 

স্থানীয় লোকজন মহিলার ডাক চিৎকার শুনে দৌড়ে এসে তাকে উদ্ধার করে নান্দাইল হাসপাতালে প্রেরন করে।  এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, সিরাজ মিয়ার পুত্ররা মাদক সেবনকারী।  তারা নিরহ লোকজনের উপর অত্যাচার ও ভয়ভীতি সহ হামলা-মামলার হুমকি দেখায়। 

সিরাজ মিয়ার বিরুদ্ধে থানায় ও কোর্টে একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানাযায়।  বিবাদীগণের বিরুদ্ধে স্থানীয় দুই ইউপি সদস্য বাবুল ও বাবলু মিয়া জানান, এ নিয়ে আমরা কয়েকবার সালিশ দরবার করেছি।  দরবারে বিধবা মহিলার জায়গা এজবদলের মাধ্যমে বুঝিয়া দেওয়ার কথা থাকলেও অদ্যবধি পর্যন্ত না দেওয়ার কারন অজ্ঞাত।