৯:০৫ এএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ২ রবিউস সানি ১৪৪০




নির্ধারিত টাইমের মধ্যে উদ্ধারে ব্যর্থ হলে নিলামে উঠবে ডুবে যাওয়া কার্গো

১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১২:১৯ পিএম | জাহিদ


এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোংলা বন্দর চ্যানেলের পশুর নদীর হারবাড়িয়া এলাকায় ডুবে যাওয়া কয়লা বোঝাই কার্গো উদ্ধার কাজ সোমবার (১৬ এপ্রিল) সকালে পর্যন্তও শুরু হয়নি।  ডুবে যাওয়া কার্গো উদ্ধারে মালিকপক্ষ সময় পাবেন ১৫ দিন।  এর মধ্যে উদ্ধার না হলে সেটি বন্দর কর্তৃপক্ষ নিলামের মাধ্যমে তোলার ব্যবস্থা করবে। 

মংলা বন্দরের হারবার মাস্টার কমান্ডার ওলিউল্লাহ জানান, মালিকপক্ষকে কয়লাসহ ডুবে যাওয়া কার্গোটি উদ্ধারে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে।  তা না হলে নিয়ম অনুযায়ী ১৫ দিন পর জাহাজটি নিলামে তোলা হবে। 

তিনি জানান, কার্গোটি যে স্থানে ডুবে গেছে, সেখানে ‘মার্কিং বয়া’ স্থাপন করেছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ।  ফলে মোংলা বন্দরে আসা দেশি-বিদেশি জাহাজগুলো দুর্ঘটনাস্থল এড়িয়ে চলতে পারছে।  বর্তমানে বন্দরের কার্যক্রম ও চ্যানেলে জাহাজ চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। 

ঢাকার ইস্টার্ন ক্যারিয়ার নেভিগেশনের মালিক মো. সোহেল আহম্মদ সোমবার জানান, ডুবে যাওয়া লাইটার কার্গো এমভি বিলাসকে দ্রুত উদ্ধারের সকল ব্যবস্থা চূড়ান্ত।  সাগরে জোয়ার ও প্রবল স্রোত থাকায় উদ্ধার কাজ শুরু করা যাচ্ছে না।  ভাটি এলেই উদ্ধার কাজ শুরু হবে। 

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদ হাসান জানান, বঙ্গোপসাগরের দিকে কয়লা বোঝাই কার্গো ডুবির ঘটনায় সুন্দরবনে কী পরিমাণ ক্ষতি হবে তা নিরূপণ করতে এক সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছে।  চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. শাহিন কবিরকে বিষয়টি সরেজমিন তদন্ত করে দ্রুত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, রোববার দুপুরে কয়লার মালিক পক্ষে চট্রগ্রামের সাহারা এন্টারপ্রাইজের অপারেশন ম্যানেজার লালন হাওলাদার সাধারণ ডায়েরি করেছেন।  জিডিতে তিনি দাবি করেছেন, দুর্ঘটনায় কোম্পানির ১ কোটি ১৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা ক্ষতি হয়েছে।  এছাড়া কার্গো মাস্টার ফরিদের কারণে ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে আরেকটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তিনি। 

রোববার (১৫ এপ্রিল) ভোর ৩টার দিকে ডুবোচরে ধাক্কা লেগে ৭৭৫ মেট্রিন টন কয়লা নিয়ে কার্গোটি ডুবে যায়।  এ সময় কার্গোতে থাকা সাত কর্মচারী সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হন।  দুর্ঘটনার দুই ঘণ্টা পর এমভি শিবসা ডুবে যাওয়া এমভি বিলাস কার্গোটি উদ্ধারে চেষ্টা চালালেও ব্যর্থ হয়। 



keya