৮:৫১ এএম, ২২ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




পাঠকের ভীড়ে ‘একুশে বইমেলা’ উৎসবে মেতেছেন তরুণী বই প্রেমীরা!

১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:২৪ এএম | জাহিদ


আখলাছ আহমেদ প্রিয়, হবিগঞ্জ : উৎসবমুখর একুশে বইমেলায় বাড়ছে পাঠকের ভীড়।  বই কেনার উৎসবে মেতে উঠেছেন বই প্রেমীরা।  দুর-দূরান্ত থেকে আসা পাঠকের উপস্থিতি এ যেন এক মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে। 

মেলার নবম দিন (শনিবার) ও দশম দিন (রবিবার) সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ছিল পাঠকে পরিপূর্ণ।  ছোট-বড় পাঠকের পাশাপাশি এবার তরুন-তরুনীদের উপস্থিতিও কম নয়।  ঝাঁক বেধে বান্ধবীদের নিয়ে বই মেলায় এসেছেন অনেক তরুনী।  বেশির ভাগ তরুনীদের পছন্দ এবার নতুন বই।  পছন্দের বইটি কিনতে তারা ঘুরছেন এক স্টল থেকে অন্যস্টলে।  দু-তিন দিন আগে বেচা-কেনা তেমন ভালো না হলেও এখন দিন দিন বাড়ছে।  প্রত্যাশার চেয়ে মেলায় এবার বেশি প্রাপ্তি ঘটবে বলে মনে করছেন অনেক প্রকাশক। 

শনিবার দুপুুর থেকে বিকেল পর্যন্ত এবং রবিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পাঠকদের বাঁধভাঙা জোয়ার দেখা গেছে বইমেলা প্রাঙ্গণে।  বইপ্রেমীদের এমন উপস্থিতি অব্যাহত থাকলে  গত বছরগুলোর চেয়ে এবার মেলা অনেক সফলতা পাবার সম্ভাবনা রয়েছে।  এবার মেলায় স্টল বসেছে ৭১৮টি। 

এর মধ্যে প্রথমা, জনতা প্রকাশনী, সময় প্রকাশন, অনন্যা, সংহতি, ভাষা প্রকাশ, কথা প্রকাশ, পাঠক সমাবেশ, জলছবি প্রকাশন, বিবর্তন, চর্চা, সাহিত্য মালা, আদী প্রকাশনী, নক্ষত্রসহ বিভিন্ন স্টলের পসরা সাজানো হয়েছে।  প্রথমা-তে রয়েছে আনিসুল হকের ‘সফল যদি হতে চাও’ ও ‘এই পথে আলো জ্বেলে’, জনতা প্রকাশনীতে রয়েছে সৈয়দ শামসুল হকের শিশুতোষ গল্প ‘ কলম ও নৌকার গল্প’, সময় প্রকাশনে রয়েছে ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের কিশোর সাহিত্য ‘এক ডজন একজনে’, ভাষা প্রকাশে রয়েছে যতীন সরকারের প্রবন্ধ ‘সংস্কৃতি ভাবনা’, ইমদাদুল হক মিলনের কিশোরগল্প ‘কলাপাতা ও লাল জবা ফুল’ রয়েছে কথা প্রকাশনায়, চন্দ্রবতী একাডেমীতে রয়েছে আনিসুজ্জামানের ‘স্মরণ ও বরণ’, বিবর্তন প্রকাশনায় রয়েছে আঞ্জুমান আরা রিমা’র উপন্যাস ‘উষ্ণ উষা’, লেঃ কর্নেল ইকবাল (অবঃ)-এর ‘অংক জয়ের ম ’ আরো রয়েছে ‘এলোমেলা ভাবনা’ ‘ভয়াল আর্তনাত’ ও ‘দ্বি-খন্ডিত চাঁদ’। 

মেলায় রয়েছে রানা আব্বাস-এর ‘বাংলাদেশের অধিনায়ক’, ইফতেকার আহমেদ-এর ‘মুজিব’, মেজর চকলাদার (অবঃ)-এর ‘গ্রাম-মুক্তিযুদ্ধ ও নারী’, মোঃ আজহারুল ইসলাম-এর ‘মানিক গঞ্জের শত মানিক’, ও আফরোজা সুলতানার কবিতার বই ‘প্রেম বিরহের কাব্য’।  এছাড়াও মেলায় গল্প, উপন্যাস, প্রবন্ধ, কবিতা, গবেষণা, ছড়া, শিশুসাহিত্য, জীবনী, মুক্তযুদ্ধ বিষয়ক, নাটক, বিজ্ঞান বিষয়ক, ভ্রমণ বিষয়ক, ইতিহাস বিষয়ক, রাজনীতি, স্বাস্থ্য বিষয়ক এবং অন্যান্য বইয়ে চেয়ে গেছে জাতীয় উদ্যান।  বান্ধবীদের নিয়ে মেলা প্রাঙ্গনে বই কিনতে আসে তানিসা নামে এক তরুণী। 

এই বই পড়ুয়া তরুণীর সাথে কথা হলে সে জানায়, ‘প্রতি বছরই বান্ধবীদের নিয়ে ঝাক বেধে একুশে বই মেলায় আসেন তিনি।  প্রতিবারই পছঠন্দমত বই কিনেন।  এবারও তিনি ২ হাজার টাকার বই কিনেছেন।  এর মধ্যে বেশিরভাগই নতুন বই।  বই কেনা এবং পড়া তার নিয়মিত অভ্যাস বলে জানান তিনি’।  

বিবর্তন প্রকাশনীর প্রকাশক আঞ্জুমান আরা রিমা বলেন, ‘বই হলো আমাদের ছেলে-মেয়েদের মতো।  বইগুলো যখন আমরা ছেলে-মেয়েদের হাতে তুলে দেয়া হয়, তখন মনে তৃপ্তি আসে।  বই পড়লে ছেলে-মেয়েরা অনেক কিছু শিখবে-জানবে, এতে আনন্দ পাাওয়া যায়’।