৮:৫৮ এএম, ২৩ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৮ রমজান ১৪৪০




পরিকল্পিত ভাবে আমাদেরকে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন রাখতে চায় : ডক্টর মুহাম্মদ ইমাম হোসাইন

০১ মে ২০১৯, ০২:৩২ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : আবু বকর (রা.) মাদ্রাসা চট্টগ্রামের উদ্দ্যোগে আয়োজিত ইসলামী সম্মেলনে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগি অধ্যাপক, ডক্টর ইমাম হোসাইন হাফিজাহুল্লাহ বলেছেন, আল্লাহকে যারা ভয় করেন, ইসলাম সম্পর্কে যাদের ধারনা আছে তারা কখনো শিরক কিংবা বেদাআত করতে পারেনা।  আলেম ওলামারা শিরক বেদআতের বিরুদ্ধে আপোষহীন। 

তিনি বলেন, দুনিয়াবি ফায়দা হাসিল করার জন্য ধর্মের নামে নতুনত্ব সংযোজন করে এক শ্রেণীর অজ্ঞ ব্যক্তিরা মুসলিমদের মধ্যে ফেৎনার জম্ম দিয়েছে।  এই পথে ধাবিত হওয়া  মুসলমানদের রক্ষা করতে হবে, ইমান বাঁচাতে হবে।  তাই রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও সাহাবায়ে কেরামগনের জীবনী অনুসরণ করা বেশি প্রয়োজন। 

তিনি আরো বলেন, তাওহীদ সুন্নাহর ভিত্তিতে নিজেদের গড়ে তুলতে হবে।  মনগড়া কোন পথে নয়, কোরআন সুন্নাহর ভিত্তিতে হক্কানী ও সহীহ আলেম ওলামাদের সান্নিধ্যে, সঠিকভাবে ইসলামী শিক্ষায় বর্তমান প্রজন্মদের শিক্ষিত করতে পারলে একদিন শিরক বিদআত মুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠিত হবে। 

চট্টগ্রাম বন্দর মধ্যম হালিশহর নারিকেল বাগান ধুমপাড়াস্থ মাদ্রাসা ও মসজিদ কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে উক্ত ইসলামী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।  মাদ্রাসার শিক্ষক আবু বক্করের পরিচালনায় ও শিক্ষক আজিজুল হকের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে মাহফিলের সূচনা হয়। 

ছাত্রদের মনোমুগ্ধকর নাত-হামদ ও তেলাওয়াত পরিবেশনের মাধ্যমে সম্মেলনস্থল মুখরিত হয়েছে।  সম্মেলনে আগত মেহমানদের উপস্থিতিতে কানায় কানায় ভরপুর হয়েছিল কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণ।  দ্বিতীয় দিনে জুমার খুতবা পরিচালনা করেন শায়েখ ডক্টর আবদুল্লাহ ফারুক হাফিজাহুল্লাহ ও মাহফিল পরিচালনা করেন মাদরাসার ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল সাহাদাত হোসেন, সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সৌদিআরবের জুবাইল ইসলামিক সেন্টারের সাবেক দাই জনাব আব্দুল্লাহ শাহেদ মাদানী হাফিজাহুল্লাহ সহ স্থানীয় আলেম ওলামাবৃন্দ।