৯:৫৯ এএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১২ সফর ১৪৪০


প্রচন্ড শীতে সাতক্ষীরায় আট শিশুর মৃত্যু

১২ জানুয়ারী ২০১৮, ০৬:৩৩ পিএম | নিশি


জাহিদ হোসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : প্রচন্ড শীতে শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগে গত কয়েক দিনে সাতক্ষীরায় মৃত্যু হয়েছে অন্তত আট শিশুর।  এছাড়া ঠান্ডায় রোগাক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে অন্তত ২৮৯ শিশু। 

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত দশদিনে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিউমোনিয়া, শ্বাসকষ্টসহ ঠান্ডাজনিত রোগাক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে ১৪১ শিশু।  এছাড়া ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে ৭৩ শিশু।  একইভাবে সাতক্ষীরা শিশু হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ৩৫ শিশু। 

সাতক্ষীরার ভোমরস্থল বন্দর এলাকার খোকন বলেন, আমার ছেলের বয়স দুই বছর।  প্রচন্ড শীতে সে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়।  প্রথমে তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তবে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  কিন্তু সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। 

সদর হাসপাতালের নার্স রাবেয়া খাতুন বলেন, হঠাৎ শৈত্য প্রবাহের কারনে শীত বেড়ে যাওয়ায় শিশুদের ঠান্ডাজনিত রোগ বৃদ্ধি পেয়েছে।  শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ বিভিন্ন রোগাক্রান্ত হয়ে গত দশদিনে আড়াই শতাধিক শিশুকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

সাতক্ষীরা শিশু হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, প্রচন্ড শীত পড়ায় অভিভাবকদের অসচেতনতার কারণে শিশুরা কোল্ড ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্ট ও নিউমোনিয়ায় বেশি আক্রান্ত হচ্ছে।  গত দশদিনে এই হার বেড়েছে।  শিশুদের ঠান্ডা থেকে দূরে রাখতে হবে।  তা না হলে এ হার আরো বাড়বে।  

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের সহকারি অধ্যাপক ডাঃ মোঃ সামছুর রহমান  বলেন, ঠান্ডা জনিত কারণে শিশুরা কোল্ড ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় বেশি আকান্ত হচ্ছে।  কখনও ঠান্ডা বেশি আবার কখনও গরম হওয়ার কারনে এমনটি হচ্ছে।  প্রতিদিন সদর হাসপাতালে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ১০ থেকে ১৫ জন ভর্তি হচ্ছে এবং নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ জন।  এছাড়া আউটডোরে প্রতিদিন ৫০ থেকে ৬০ জন রোগী আসছে।