৫:০২ এএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৭ সফর ১৪৪০


আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

পিরোজপুরে আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও পিপিকে মারধোরের অভিযোগ

০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:৪৮ পিএম | সাদি


মুহাঃ দেলোয়ার হোসাইন, পিরোজপুর সংবাদদাতা:  পিরোজপুর আইনজীবী সমিতির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দিন ভর শহরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।  ভোট চলাকালীন সময় পিরোজপুর আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও পিপি মোঃ ফারুক সরদারকে মারধোর করেছে দুর্বৃত্তরা।  

এর আগে সকালে আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সভাপতি প্রার্থী খান মোঃ আলাউদ্দিন এবং স্বতন্ত্র সভাপতি প্রার্থী কানাই লাল বিশ্বাস এর সমর্থক ফারুক সরদারের সাথে বাকবিতন্ডা হয়।  

এরপর ভোট দিয়ে ফেরার পথে ফারুক সরদারের উপর হামলা চালায় একদল দুর্বৃত্ত।  তার অভিযোগ আলাউদ্দিনের লোকজনই তার উপর হামলা চালিয়েছে।  

নিজের বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে আলাউদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় তার কোন সম্পৃক্ততা নাই।  তার জনপ্রিয়তায় ইর্ষন্বিত হয়ে হামলার নাটক সাজানো হয়েছে।  

নির্বাচনে ২১ টি পদের বিপরীতে ৩৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছে।  এবং ২৭৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।  

সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল আটটায় জেলা আইনজীবী সমিতির ভোট গ্রহন শুরু হয়।  সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ভোট চলাকালীন সময় পিরোজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ফারুক সরদারের সঙ্গে সাইদুর রহমান নামের এক আইনজীবীর বাকবিতন্ডা হয়।  এরপর আইনজীবী সমিতির সভাপতি প্রার্থী খান মো. আলাউদ্দিন সাইদুর রহমানের পক্ষ নিলে তাঁর সঙ্গে ফারুক আহমেদ সরদারের হাতাহাতি হয়। 

দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে ফারুক আহমেদ সরদার বাড়ি ফেরার পথে শহরের আম্বিয়া হাসপাতালের সামনে ১০ থেকে ১৫ জন দুর্বৃত্ত তাঁর ওপর হামলা চালায়।  স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে।  পরে তাঁকে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া  হয়।  

প্রত্যক্ষদর্শী এক ব্যক্তি  বলেন, ফারুক আহমেদ সরদার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে বের হয়ে রিকশা যোগে আম্বিয়া হাসপাতালের সামনে পৌছলে একদল যুবক তাঁর ওপর হামলা করে।  তাঁকে এলাপাতাড়ি চড়-থাপ্পড় মারতে থাকে এবং প্যান্ট ছিড়ে ফেলে। 

ফারুক আহমেদ সরদার বলেন, এ ঘটনায় আমি থানায় ৯ জনের নাম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।  

খান মো. আলাউদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় আমার কোন সম্পৃক্ততা নাই।  উনি  রিকশা থেকে পড়ে ব্যথা পেয়েছেন।  

পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জিয়াউল হক বলেন, এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি।  অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  


keya