৬:৩৯ পিএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

South Asian College

প্রেমেরটানে দুধের শিশুকে রেখে পালিয়েছে মা

১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১১:২১ পিএম | সাদি


সৈয়দ ফয়েজ আলী, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার কালেঙ্গা গ্রামের মিজান মিয়ার স্ত্রী সালমা বেগম(২৫) প্রেমের টানে আট বছরের সংসার ও একবছরের দুধের শিশুকে রেখে তালতো ভাই সালাম মিয়ার সাথে পালিয়ে যায়। 

স্বামীর লিখিত অভিযোগে জানা যায়, শ্বশুর বাড়িতে তালতো ভাই সালামের সাথে সালমা বেগমের পরিচয় ঘটে।  এর পর থেকে সালমা বেগমের সাথে প্রতিনিয়ত ফোনে কথা চলে সালামের।  এক সময়ে তাদের মধ্যে গভীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।  এবিষয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রায় সময় ঝগড়া ঝাটি হতো।  গত (৯ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় স্বামী স্ত্রীর আবার ঝগড়া হয়।  পরে তাদের আত্মীয় আলী হোসেন, মন্টু মিয়া, তাদের মধ্যে মীমাংসা করে দেন।  এর পরের দিন  গত (১০ ফেব্রুযারী)সালমা বেগম তার স্বামীর অনুপস্থিতে তার ঘরের রক্ষীত নগদ পচাত্তর হাজার টাকা ও দুই ভরি স্বর্ণ নিয়ে সালাম মিয়ার সাথে পালিয়ে যায়। 

পালিয়ে যাওয়ার সময় দুই শিশু বাচ্ছাকে তার পিতার ঘরে রেখে যায়।  সালমাকে পালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে সার্ভিক সহযোগিতা করেছে তার শালিকা নাজমা বেগম।  মিজান মিয়ার অভিযোগ তার শ্বশুর শ্বশুরির সম্মতিক্রমে প্রেমিক সালাম মিয়ার সাথে নগদ টাকা ও স্বর্ণ সহ তার স্ত্রী পালিয়ে যায়।  তার এক বছরের দুধের শিশুটি মায়ের অভাবে মরনাপন্ন অবস্থায় আছে।  সালাম মিয়া প্রেমের ফাঁদে ফেলে প্ররোচনা দিয়ে তার স্ত্রীকে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেন।  এব্যাপারে মিজান মিয়া কমলগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন, ডায়েরি নং-৫৯৬। 

এবিষয়ে কমলগঞ্জ থানার তদন্তকারি কর্মকর্তা মো: সুরুজ আলীর সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি বলেন, পূর্ব থেকে সালমার সাথে সালাম মিয়ার পরকিয়া প্রেম ছিল।  সেই সুবাধে সালাম তাকে নিয়ে পালিয়েছে।  তিনি সালমার পিতা-মাতাকে তিন দিনের সময় দিয়েছেন।  এর মধ্যে সালমাকে হাজির করতে বলেছেন।