৯:৫৪ এএম, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, রোববার | | ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




ফরিদগঞ্জে শিক্ষক লাঞ্ছনার ঘটনার দেড়মাস পর মামলা

১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:৪৭ পিএম | সাদি


জাকির হোসেন সৈকত, ফরিদগঞ্জ প্রতিনিদি : ফরিদগঞ্জ এ. আর. পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রকাশ্যে শিক্ষক লাঞ্ছনার ঘটনার দেড়মাস অবশেষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দুই ষড়যন্ত্রকারীর বিরুদ্ধে মামলা করলো স্কুল কর্তৃপক্ষ।  এছাড়া শিক্ষককে পরিকল্পিত ভাবে লাঞ্ছিত করায়, শিক্ষার্থী ফারহানা ইয়াসমিনকে স্কুল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।  একই ভাবে তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী খন্ডকালিন শিক্ষক মেহেদি হাসান রাজুকে স্কুল থেকে অব্যহতি এবং সহকারী শিক্ষিকা জেসমিন আক্তারকে  এবং  স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য রেজাউল করিম মাসুদকে দোষী সাব্যস্ত করে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়।  বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল আমিন কাজল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

জানা গেছে, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গত ২ ফেব্রুয়ারী সভার মাধ্যমে ২৮ ডিসম্বর তারিখের দুঃখজনক ঘটনার বিষয়ে মেয়েকে স্কুল থেকে বহিস্কার ও দুই ষড়যন্ত্রকারীর বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নেয়।  সে অনুযায়ী সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হয়েছে। 

এব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, আমরা আপাতত দু’জনের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিয়েছি।  পুলিশ তদন্ত করে যদি শুধু রাজু কেন তার চেয়েও বড় কোন ষড়যন্ত্রকারীকে খুঁজে পায় তবে তাদের বিরুদ্ধেও একই ভাবে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

উল্লেখ্য,গত ২৮ ডিসেম্বর ফরিদগঞ্জ এ. আর পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সহকারী শিক্ষক রাসেল হাসানকে শিক্ষার্থী কর্তক পরিকল্পিত লাঞ্ছনা করে একটি অসাধূ চক্র।  পরবর্তীতে ৭ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হলে তদন্ত প্রতিবেদনে শিক্ষক রাসেল হাসানকে নির্দোষ দেখিয়ে শিক্ষার্থী সহ ৭ জনকে ঘটনার ষড়যন্ত্রকারী ও প্ররোচণাকারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়।