১১:১৩ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১২ সফর ১৪৪০


বিকালে বিদেশি কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসছে বিএনপি

০৭ আগস্ট ২০১৮, ০৬:১২ পিএম | মাসুম


এসএনএন২৪.কম : বাংলাদেশে কর্মরত বিদেশি কূটনীতিকদের সঙ্গে মঙ্গলবার বিকালে আবারও বৈঠকে বসছে বিএনপি। 

বিকাল ৫টায় দলের চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয় গুলশানে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। 

জানা গেছে, বৈঠকে নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলন, দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে হামলা, নির্যাতন এবং মামলার প্রসঙ্গ তুলে ধরবেন বিএনপি নেতারা। 

এছাড়া শনিবার ও রোববার রাজধানীর ঝিগাতলা ও ধানমণ্ডি এলাকায় সংঘটিত সংঘর্ষের ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হবে।  একইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা স্টিফেনস ব্লুম বার্নিকাটের গাড়িবহরে হামলার বিষয়টিকেও তারা প্রাধান্য দেবেন। 

এ হামলার সঙ্গে সরকারদলীয় নেতাকর্মী সম্পৃক্ত- এমন তথ্য-প্রমাণ দেবেন নেতারা।  এর মধ্যে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে হামলার সঙ্গে সম্পৃক্ত আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ নেতাদের নাম, প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ণনা তুলে ধরবেন বলে জানা গেছে। 

বিএনপির কূটনৈতিক উইংয়ের এক নেতা জানান, এর বাইরে দেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতি, দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলা, জামিন প্রক্রিয়া ছাড়াও আগামী জাতীয় নির্বাচনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরবেন।  বৈঠকে সম্প্রতি শেষ হওয়া পাঁচ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের অনিয়ম ও ভোট জালিয়াতির বিষয় কূটনীতিকদের অবহিত করা হবে। 

সূত্র জানায়, কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠকের প্রস্তুতি হিসেবে সোমবার বিকালে চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে জরুরি বৈঠক করেন বিএনপির কূটনৈতিক উইং।  বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান, সাবিহউদ্দিন আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল প্রমুখ। 


খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর চতুর্থবারের মতো কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করবেন দলটির নেতারা। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ২০ দলীয় জোটের বৈঠক: কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠকের পরপরই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ২০ দলীয় জোটের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।  গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। 

বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব এম গোলাম মোস্তয়া ভূঁইয়া বলেন, বৈঠকে জোটের শীর্ষ নেতাদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। 

বৈঠকে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন, দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গেছে। 


keya