৯:১১ পিএম, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | | ৮ রবিউস সানি ১৪৪১




বাজারে নতুন পেঁয়াজ, ঝাঁজ কিছুটা কমছে

১১ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:৫২ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম: জামালপুরের হাট-বাজারে উঠতে শুরু করেছে নতুন পেঁয়াজ।  ফলে এর কিছুটা প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বাজারে। 

নতুন পেঁয়াজের বেশি দাম পেয়ে খুশি কৃষক।  পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরবরাহ কম থাকায় বেশি দামে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে তাদের। 

তবে কৃষি কর্মকর্তার দাবি, নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করায় কিছুটা নামতে শুরু করেছে পেঁয়াজের ঝাঁজ। 

জামালপুর সদর, ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ, বকশীগঞ্জ, মাদারগঞ্জ, মেলান্দহ এবং সরিষাবাড়ি উপজেলার চরাঞ্চলের বিস্তীর্ণ জমিতে একই সঙ্গে মিশ্র ফসল হিসেবে কৃষকরা আগাম পেঁয়াজ রোপন করে।  বন্যা এবং বৃষ্টির কারণে চারার ব্যাপক ক্ষতি হলেও বাজারে দাম বেশি থাকায় কৃষকরা ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার আশা করছেন।  ইতোমধ্যে ক্ষেত থেকে পাতাসহ পেঁয়াজ তুলতে শুরু করেছেন তারা।  বাজার চড়া থাকায় কৃষকরা তাদের উৎপাদিত নতুন পেঁয়াজের দামও পাচ্ছেন ভালো।  পেঁয়াজের ফলন ও দাম দু’টিই ভালো হওয়ায় খুশি কৃষকেরা। 

কৃষকরা বলেন, পেঁয়াজ বিক্রি করতে পেরে আমরা খুশি।  টাকাও বেশি পাচ্ছি।  তাই মনেও বেশ আনন্দ।  দাম খুবই ভালো।  এ বাজার থাকলে এবার অনেক লাভ করা যাবে।  

পেঁয়াজের আমদানি কম থাকায় দাম বেড়েছে বলে দাবি ব্যবসায়ীদের।  অবশ্য নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করায় পুরাতন পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমতে শুরু করেছে।  বাজারে পুরাতন পেঁয়াজের দাম ১১৫ টাকা থেকে ১০০ টাকায় নেমে এসেছে।  আর নতুন পেঁয়াজ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকায়। 

এ বছর জেলায় ৩ জাতের আগাম পেঁয়াজের আবাদ করা হয়েছে।  মূলত ফেব্রুয়ারি মার্চে পেঁয়াজ উঠবে। 

কৃষিবিদ মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, যে পরিমাণ নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসবে তা চাহিদামত না হলেও দাম কমাতে ভূমিকা রাখবে।  

জেলায় এবার আড়াই হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। 


keya